Kolkata: কোন পদ্ধতি মেনে কাজ করছে রাজ্যের করোনা সংক্রান্ত অডিট কমিটি, জানতে চেয়ে মুখ্যসচিবকে চিঠি পাঠাল কেন্দ্রীয় দল
করোনার সংক্রমণ (Photo Credits: IANS)

কলকাতা, ২৪ এপ্রিল: করোনা রিপোর্ট পজিটিভ (COVID-19), কিন্তু মৃত্যু করোনা সংক্রমণের জেরে কিনা, তা খতিয়ে দেখতে চিকিৎসকদের নিয়ে অডিট কমিটি তৈরি করেছে রাজ্য সরকার। এবার সেই কমিটির কাজের পদ্ধতি জানতে চাইল কলকাতায় আসা আন্তঃমন্ত্রক কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল (IMCT)। এই দলের প্রধান অপূর্ব চন্দ্র রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহাকে (Rajiva Sinha) পাঠানো চিঠিতে লেখেন, করোনায় মৃত্যু হয়েছে কিনা, তা ঘোষণার ক্ষেত্রে কমিটি কী পদ্ধতি অবলম্বন করেছে? সেই পদ্ধতি কি আইসিএমআর-র গাইনলাইনর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ ? এছাড় চিঠিতে বলা হয়েছে, কয়েকজন রোগীর ক্ষেত্রে করোনা পরীক্ষার ফলাফল আসতে পাঁচ দিনের বেশি সময় লাগছে। কেন্দ্রীয় দল প্রতিদিন ২৫০০-৫০০০ পর্যন্ত পরীক্ষা বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছে।

কলকাতায় আসা আন্তঃমন্ত্রক কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দলটি গতকাল প্রথমে যায় রাজারহাটের কোয়রান্টিন সেন্টারে। সঙ্গে ছিলেন রাজ্যের শিক্ষা স্বাস্থ্য অধিকর্তা দেবাশিস ভট্টাচার্য। সুপারের সঙ্গে আলোচনা সেরে এক ঘণ্টা ধরে হাসপাতাল পরিদর্শন করেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকরা। সেখান থেকে তাঁরা যান এম আর বাঙুর হাসপাতালে। সেখানেও ঘণ্টাখানেক ছিলেন তাঁরা। বাঙুরে আইসোলেশন ওয়ার্ড, আইসিসিইউ ঘুরে দেখেন তাঁরা। ওই হাসপাতালের পাশের বাড়িতে করোনা পজ়িটিভ এবং উপসর্গ থাকা রোগীরা ভর্তি রয়েছেন। সেখানে মর্গেও যায় পরিদর্শক দল। অন্যদিকে উত্তরবঙ্গের দলটি বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল লাগোয়া আবাসন কমপ্লেক্সে গিয়ে সেখানে কত জন থাকেন এবং খাবারের জোগান বিষয়ে খোঁজ নেয়। আরও পড়ুন: Coronavirus Outbreak: এক পয়সাও দিইনি, সব ত্রুটিযুক্ত র‌্যাপিড অ্যান্টিবডি কিট ফেরত পাঠানো হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন

গতকাল বিকেলে রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা জানান, কলকাতা পরিদর্শন করে স্বস্তি প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় দল। পর্যবেক্ষক দলের জন্য আর কিছু করার নেই। তিনি বলেন, "যা সহযোগিতা করার, আমরা করেছি। এলাকা দেখতে চেয়েছিল, দেখানো হয়েছে। স্বাস্থ্যসচিবের কাছে প্রেজ়েন্টেশন চেয়েছিল। তাও করা হয়েছে। যা তথ্য দেওয়ার দেওয়া হয়েছে। এর পর আর কিছু আমাদের তরফে দেওয়ার নেই। কেন্দ্রীয় দল এর পর তথ্য চাইলে ই-মেল করবে। পাঠিয়ে দেব।"