India vs South Africa,2nd T20: আইপিএল শেষে লজ্জা, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টানা দুটি ম্যাচে হেরে ০-২ সিরিজে পিছিয়ে পড়ল ভারত
South africa takes 2-0 Lead. (Photo Credits: Twitter)

কটক, ১২ জুন: আইপিএলের পর দেশের তারকা সিনিয়র ক্রিকেটারদের বিশ্রাম দিয়ে ভরাডুবি চলছে টিম ইন্ডিয়ার। রবিবার কটকে ভারতকে ৪ উইকেটে হারিয়ে পাঁচ ম্যাচের টি-২০ সিরিজে ২-০ এগিয়ে গেল দক্ষিণ আফ্রিকা। কটকে প্রথমে ব্যাট করে ভারত করে ১৪৮ রান। জবাবে ১০ বল বাকি থাকতে ৬ উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় প্রোটিয়ারা। রান তাড়া করতে নেমে ৬৪ বলে ৮১ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন দক্ষিণ আফ্রিকার মিডল অর্ডার ব্যাটার হেনরিক ক্লাসেন। ভূবনেশ্বর কুমার ৪ ওভার বল করে মাত্র ১৩ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেওয়ার দুরন্ত স্পেল উপহার দেন। তবে দলের বাকিদের ব্যর্থতা ভুবির স্মরণীয় স্পেল দাম পেল না।

দলের দুই পেসার আবেশ খান ও হার্দিক পান্ডিয়া উইকেট পাননি। যুজবেন্দ্র চাহাল ও হর্ষল প্যাটেল একটি করে উইকেট পান। ৯৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু পঞ্চম উইকেটে ক্লাসেন-মিলার জুটি ৫১ রানের পার্টনারশিপ করে ম্যাচ ও সিরিজ বের করে নেন। আরও পড়ুন: আইপিএল তুমি কার? 'দেখানদারি'র লড়াইয়ের খেলা শুরু

দেখুন টুইট

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ঋতুরাজ গায়কোয়েড়(১)-এর উইকেট হারায় ভারত। এরপর ইশান কিষাণ ও শ্রেয়স আইয়ার প্রাথমিক ধাক্কা সামলে ভালই এগোচ্ছিলেন। কিন্তু ইশান কিষাণ (২১ বলে ৩৪)-র আউটের পরই ভারতের ইনিংসে ধস নামে পরপর আউট হন অধিনায়ক ঋষভ পন্থ (৫) ও হার্দিক পান্ডিয়া (১২ বলে ৯ রান)। হার্দিকের পর শ্রেয়স (৩৫ বলে ৪০) সেট হয়ে আউট হওয়ায় ভারতের সমস্যা বাড়ে। দীনেশ  কার্তিকের আগে অক্ষর প্যাটেল (১১ বলে ১০-কে পাঠিয়ে লাভ হয়নি। শেষ অবধি দীনেশ কার্তিকের দুটি ছক্কা, দুটি বাউন্ডারিতে সাজানো ২১ বলে অপরাজিত ৩০ রানের ক্যামিও ইনিংসে ভর করে কিছুটা লড়ার মত জায়গায় রানটা নিয়ে যায়। যদিও আজকালকার টি-২০ ক্রিকেটে প্রথমে ব্যাট করে ১৪৬ রানটা মোটেও বিশেষ ভদ্রস্থ বলা যাবে না।

রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, জশপ্রীত বুমরা, মহম্মদ শামি-দের বিশ্রাম দিয়ে প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সিরিজে নেমে অভিজ্ঞতার অভাবে ভুগছে টিম ইন্ডিয়ার। সিরিজের তৃতীয় তথা ম্যাচ মঙ্গলবার, বিশাখাপত্তনামে। এখান থেকে এই সিরিজ জিততে হলে ভারতকে এখন বাকি তিনটে ম্যাচের তিনটেই জিততেই হবে।