MCG: স্মিথদের এমসিজিতে হবে মেসি বনাম নেইমার, জুনে অস্ট্রেলিয়ায় ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ
Lionel Messi and Neymar Jr. (Photo Credits: Twitter@FabrizioRomano)

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন ক্রিকেট স্টেডিয়ামে (MCG) আয়োজিত হতে চলেছে ফুটবল বিশ্বের বড় ম্যাচ ব্রাজিল (Brazil) বনাম আর্জেন্টিনা (Argentina)। জুনে এমসিজিতে এক প্রীতি ম্যাচে মুখোমুখি হবেন মেসি-নেইমাররা। কাতার বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতে অস্ট্রেলিয়ার এমসিজিতে আগামী ১১ জুন ফিফা ক্রম তালিকায় শীর্ষে থাকা ব্রাজিল, আর চার নম্বরে থাকা আর্জেন্টিনা মুখোমুখি হবে বলে এমসিজি-র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার এমসিজিতে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা মুখোমুখি হয়েছিল। সেই ম্যাচে ভরা এমসিজিতে ৯৫ হাজার ৫৬৯ জন দশর্কের সামনে মেসিরা ১-০ গোলে হারিয়েছিলেন ব্রাজিলকে। সেটাই ছিল এমসিজি-তে আয়োজিত কোনও ফুটবল ম্যাচে সবচেয়ে বেশি দর্শকের রেকর্ড।

চলতি বছর ১৩ নভেম্বর এই এমসিজি-তেই হবে টি টোয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনাল। অন্যদিকে, কাতারে ফুটবল বিশ্বকাপ শুরু হবে ২১ নভেম্বর থেকেআরও পড়ুন: 

আবারও হাসপাতালে ভর্তি হলেন ফুটবল কিংবদন্তি পেলে

এদিকে, দক্ষিণ আমেরিকায় যোগ্যতাঅর্জন পর্বে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার মধ্যে ম্যাচ এখনও বাকি আছে। ব্রাজিলে আয়োজিত সেই ম্যাচ করোনা প্রোটোকল ভাঙার কারণে মাঝপথে বন্ধ হয়ে যায়। পরে ঠিক হয় এই ম্যাচটি পরে আয়োজিত হবে। দক্ষিণ আমেরিকায় বিশ্বকাপের যোগ্যতাপর্বের খেলা শেষ হয়ে গেলেও, সেই বাকি থাকা ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচ এখনও আয়োজিত হয়নি। যদিও এই ম্যাচের আর কোনও গুরুত্বই নেই। কারণ ব্রাজিল লাতিন আমেরিকা থেকে সবার আগে থেকেই কাতারের টিকিট কেটেছে। অন্যদিকে, আর্জেন্টিনা দ্বিতীয় স্থানে থেকে কাতারে বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলবে।

কাতার বিশ্বকাপে ব্রাজিলের গ্রুপে (জি) আছে- সুইজারল্যান্ড, সার্বিয়া, ক্যামেরুন। অন্যদিকে আর্জেন্টিনার গ্রুপে (সি) আছে পোল্যান্ড, মেক্সিকো, সৌদি আরব। দক্ষিণ আমেরিকার এই দুটি সুপার পাওয়ার দেশ কাতারে ফেভারিট হিসেবেই নামছে। এশিয়ায় আয়োজিত শেষ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ব্রাজিল (২০০২ জাপান-দক্ষিণ কোরিয়া)।