মাহি আউট, সেমিফাইনালে আশার আলো নিভতেই হৃদরোগে মৃত্যু ক্রিকেট ভক্তের

 কলকাতা, ১৩ জুলাই:   সেমি ফাইনালে আশা শেষ হয়ে গিয়েছে, ক্রিকেট বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে ভারত।মহেন্দ্র সিং ধোনি রানআউট হওয়ার পরেই সেমিফাইনালে আশা শেষ হয়ে যায় ভারতের। এই ঘটনায় মন ভার দেশবাসীর। আর এই রানআউট সহ্য করতে না পেরেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে খানাকুলের এক বাসিন্দার। রানআউটের পর আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেছেন ওড়িশার এক বাসিন্দা। আরও পড়ুন-গান গাওয়াকে কেন্দ্র করে খুনোখুনি, সহপাঠীর বুকে ছুরি বসাল ছাত্র

হুগলির সেকেন্দরপুরে একটি সাইকেল সারানোর দোকান রয়েছে ৩৩ বছরের যুবক শ্রীকান্ত মাইতির। বৃহস্পতিবার দোকানে বসেই ফোনে খেলা দেখছিলেন তিনি। পুলিশ সূত্রে খবর, ধোনি রানআউট হওয়ার পরেই নিস্তেজ হয়ে পড়েন শ্রীকান্ত। নিজের চেয়ার থেকে মাটিতে পড়ে যান তিনি। আশপাশের লোকেরা দেখেন তাঁর জ্ঞান নেই। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে খানাকুল গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ধোনি আউট হওয়ার পর সেই শক সহ্য করতে না পেরেই হার্ট অ্যাটাক হয় শ্রীকান্তর। এক ছেলে ও এক মেয়ের বাবা শ্রীকান্তর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে গ্রামে।

অন্যদিকে ধোনির রানআউটের পর ভারত হেরে গেলে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেন ওড়িশার কালাহাণ্ডি জেলার সিংভাড়ি গ্রামের ২৫ বছরের যুবক শম্বরু ভোই। পুলিশ সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার নিজের বাড়িতেই বন্ধুদের সঙ্গে খেলা দেখছিলেন তিনি। বন্ধুদের সঙ্গে ভারতের জেতা নিয়ে ঝগড়াও হয় তাঁর। কিন্তু ধোনি আউট হতেই হার নিশ্চিত জেনে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পাশের ক্ষেতে গিয়ে বিষ খান তিনি।