IPL Final 2021, KKR vs CSK: কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ২৭ রানে হারিয়ে চতুর্থবার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংস
Chennai Super Kings beat Kolkata Knight Riders

আইপিএল (IPL 2021) চ্যাম্পিয়ন হল চেন্নাই সুপার কিংস (Chennai Super Kings)। ফাইনালে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে (Kolkata Knight Riders) তারা ২৭ রানে হারিয়ে দেয়। এনিয়ে চতুর্থবার আইপিএল শিরোপা জিতল চেন্নাই। আর প্রতিবারেই নেতৃত্বে ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি।

ফাইনালে টসে জিতে চেন্নাইকে ব্যাটিং করতে পাঠান কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক ইয়ন মর্গান। প্রথম ওভারেই শাকিব অল হাসানকে আক্রমণে নিয়ে আসেন তিনি। ইনিংসের তৃতীয় ওভারে শাকিব প্রথম বলেই উইকেট পেতে পারতেন। তার ঘূর্ণি মিস করে রুতুরাজ গাইকোয়াড় কিছুটা সামনে চলে আসলেও উইকেটরক্ষক দীনেশ কার্তিক স্ট্যাম্প ভাঙতে পারেননি। জীবন পেয়েই শাকিবের উপর চড়াও হন রুতুরাজ। টানা দুই বলে হাঁকান চার আর ছক্কা। ওপেনিং জুটিতে ভাল একটা সূচনা করে চেন্নাই। রুতুরাজ আর ফাফ ডু প্লেসি পাওয়ার প্লে'র প্রথম ৬ ওভারেই দলকে এনে দেন ৫০ রান। অবশেষে নবম ওভারে এসে তাদের ৬১ রানের জুটিটি ভাঙেন সুনীল নারাইন। ২৭ বলে ৩২ করে লং অফে ক্যাচ তুলে দেন রুতুরাজ। ৩৫ বলেই অর্ধ শতরান করেন ডু প্লেসি। দ্বিতীয় উইকেটে রবিন উথাপ্পাকে নিয়ে ৩২ বলে ৬৩ রানের বিধ্বংসী এক জুটি গড়েন তিনি। ১৫ বলে ৩১ রানের ঝড় তুলে নারাইনের বলে এলবিডব্লিউ হন উথাপ্পা।

তবে, এরপর মইন আলিকে নিয়ে আরেকটি জুটি গড়েন ডু প্লেসি। ৩৮ বলে ৬৮ রানের জুটি গড়ে ইনিংসের একদম শেষ বলে আউট হন তিনি। ৫৯ বলে তাঁর ৮৬ রানের ইনিংসে ছিল ৭ চার আর ৩ ছক্কার মার। ২০ বলে ৩৭ রানে অপরাজিত থাকেন মইন। কলকাতার বোলারদের মধ্যে সুনীল নারাইন ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে নিয়েছেন ২টি উইকেট।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ওপেনিং জুটিতে ভাল শুরু করে কলকাতা নাইট রাইডার্সের। ৫ ওভারের শেষে বিনা উইকেটে কেকেআরের স্কোর হয়ে যায় ৪৭। পাওয়ার প্লে-র প্রথম ৬ ওভারে কোনও উইকেট না খুইয়ে হয় ৫৫ রান। ৩১ বলে ৫টি চার ও ৩ টি ছক্কার সাহায্যে অর্ধশতরান করেন ভেঙ্কটেশ আইয়ার। শার্দুল ঠাকুরের বলে মারতে গিয়ে রবীন্দ্র জাদেজার হাতে ক্যাচ দিয়ে বসেন ভেঙ্কটেশ আইয়ার। ৯১ রানের মাথায় প্রথম উইকেট যায় কলকাতার। ১২ ওভারের শেষ বলে শূন্য রানে ডু প্লেসির হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন নীতিশ রানা। এরপর মারতে গিয়ে বাউন্ডারি লাইনে জাদেজার হাতে ধরা পড়েন সুনীল নারাইন। জস হ্যাজেল উডের শিকার হন তিনি। এরপর কেকেআর শিবিরে টানা তিন ধাক্কা দেন চেন্নাইয়ের বোলাররা। শুভমন গিল (৫১) ও দীনেশ কার্তিক (৯) ও শাকিব অল হাসান (০) সাজঘরে ফেরেন। খানিক পরই ছয় মারতে গিয়ে আউট হন রাহুল ত্রিপাঠি। ফাইনালেও কিছু করতে পারলেন কলকাতার অধিনায়ক ইয়ন মর্গান। মাত্র ৩ রানে আউট হয়ে যান তিনি।

শেষ ওভার কলকাতার ম্যাচ জিততে দরকার ছিল ৩১ রান। শেষ ওভারের পঞ্চম বলে আউট হয়ে যান শিবম মাভি। ১৩ বলে ২০ রান করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে কলকাতার রান দাঁড়ায় ৯ উইকেটে ১৬৫।