BCCI to Invite for New Head Coach: টি-২০ বিশ্বকাপের পর নতুন কোচের আবেদনপত্র ছাড়বে বিসিসিআই, কোন বিষয়ে থাকছে নজর?
IND Team at Practice (Photo Credit: BCCI/ X)

বিসিসিআই গত বছর বর্তমান কোচের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেই প্রধান কোচের জন্য আবেদনের আহ্বান জানিয়েছিল সে ভুল করেছিল তার পুনরাবৃত্তি করবে না। পরবর্তী বড় অ্যাসাইনমেন্টের জন্য পর্যাপ্ত সময় না থাকায়, বিদায়ী কোচ রাহুল দ্রাবিড় এই জুনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত সময় বাড়ানোর জন্য রাজি হন। এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য দল রওনা হওয়ার আগেই আবেদনপত্র আহ্বান করা হবে। দ্রাবিড় যদি চালিয়ে যেতে চান, তাহলে তাঁকে ফের আবেদন করতে হবে। বিসিসিআই সদর দফতরে সাংবাদিক বৈঠকে বিসিসিআই সচিব জয় শাহ বলেন, 'আমরা আগামী কয়েক দিনের মধ্যে আবেদনপত্র ছাড়ব। জুন মাসে রাহুল দ্রাবিড়ের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। তিনি যদি পুনরায় আবেদন করতে চান, তাহলে করতে পারেন।' Team India Jersey: রোহিত, বিরাটদের বিশ্বকাপ স্পেশাল জার্সি কত টাকায় কিনতে পারবেন

শাহ নিশ্চিত করেছেন যে নতুন প্রধান কোচকে ২০২৭ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপ পর্যন্ত দায়িত্ব নেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হবে। নতুন হেড কোচের সঙ্গে পরামর্শ করে ব্যাকরুমের বাকি স্টাফ নিয়োগ করা হবে। শাহ বলেন যে ফর্ম্যাটগুলির ভিত্তিতে ভারত নানা কোচ নিয়োগের সম্ভাবনা কম। তিনি বলেন, 'আমরা তিন বছরের জন্য দীর্ঘমেয়াদি কোচ খুঁজছি। ভারতীয় ক্রিকেটে ভিন্ন ভিন্ন ফরম্যাটের কোচের নজির নেই। তাছাড়া আমাদের বেশ কয়েকজন সব ফরম্যাটের খেলোয়াড় আছে। শেষ পর্যন্ত ক্রিকেট অ্যাডভাইজরি কমিটির (সিএসি) সিদ্ধান্তই শেষ কথা। তারা যা সিদ্ধান্ত নেবে তা বাস্তবায়ন করতে হবে।'

সিএসি নতুন জাতীয় নির্বাচকের বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেবে, যার জন্য বিসিসিআই ইতিমধ্যে এই বছরের জানুয়ারিতে বিজ্ঞাপন দিয়েছিল। এই নির্বাচক সম্ভবত পশ্চিমাঞ্চল থেকে নির্বাচক কমিটির দ্বিতীয় সদস্য সলিল আঙ্কোলার স্থলাভিষিক্ত হবেন। নতুন সদস্য উত্তর অঞ্চল থেকে হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অমিত শাহ বলেন, 'নির্বাচক পদের জন্য ইতিমধ্যেই কয়েকজনের ইন্টারভিউ নেওয়া হয়েছে। নাম চূড়ান্ত করতে এক সপ্তাহের মধ্যে সিএসি বৈঠকে বসবে এবং আমরা শিগগিরই এটি ঘোষণা করব।' শাহ আরও নিশ্চিত করেছেন যে ভারতীয় দল টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের উদ্দেশ্যে দুটি ব্যাচে রওনা হবে।

যে সব ক্রিকেটার আইপিএলের প্লে অফে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারবে না, তারা কোচিং স্টাফদের নিয়ে ২৪ মে রওনা দেবে। ২৬ মে আইপিএল ফাইনালের পর রওনা দেবেন দলের বাকিরা। ভারতের প্রথম ম্যাচ ৫ জুন, আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে। লিগ পর্বের বাকি ম্যাচগুলিতে যে দলগুলির প্লে অফে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই তাঁদের শাহ বিশ্রামের বিষয়টিও বাদ দিয়েছেন তিনি। লখনউ সুপার জায়ান্টসের ফাস্ট বোলার ময়ঙ্ক যাদব যে বিসিসিআইয়ের তত্ত্বাবধানে থাকবেন বলে শাহ নিশ্চিত করেছেন। আকাশ দীপ, বিজয়কুমার বৈশাখ, উমরান মালিক, যশ দয়াল ও বিদওয়াথ কাভেরাপ্পার মতো প্রতিশ্রুতিশীল ফাস্ট বোলারদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন তিনি।

আইপিএল বাদে সারা বছরই এই বোলারদের নজরদারি করবেন এনসিএ-র মেডিক্যাল স্টাফরা। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুধু কি ইংল্যান্ডেই হবে কিনা সেই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এর জন্য অন্য উইন্ডো সন্ধান করা বা জুনে এটি হোস্ট করতে পারে এমন অন্য কোনও ভেন্যু সন্ধান করার চ্যালেঞ্জ স্বীকার করার সময়, শাহ ইঙ্গিত দেন যে বিসিসিআই বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের জন্য নতুন ভেন্যু সম্পর্কে আইসিসির সাথে কথা বলেছে। উল্লেখ্য, তৃতীয় ফাইনালও ২০২৫ সালের জুনে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হবে।