IPL 2022 Auction: নিলামে যে ৫ ক্রিকেটারকে দলে নেওয়ার জন্য ঝাঁপাতে পারে কলকাতা নাইট রাইডার্স
David Warner, Shreyas Iyer, Lockie Ferguson (Photo: Instagram)

আগামী ১২ ও ১৩ ফেব্রুয়ারি বেঙ্গালুরুতে (Bengaluru) বসছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের মেগা নিলাম (IPL 2022 Auction)। সম্ভাব্য শক্তিশালী দল গঠনের জন্য ১০টি ফ্র্যাঞ্চাইজি একে অপরকে টেক্কা দিতে প্রস্তুত। এবার আইপিএলে নতুন দুটি দল খেলতে নামবে। তারা হল লখনউ সুপার জায়ান্টস এবং গুজরাত টাইটান্স। মেগা নিলামের আগে দুই বারের চ্যাম্পিয়ন কলকাতা নাইট রাইডার্স (Kolkata Knight Riders) চার খেলোয়াড়কে ধরে রেখেছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল ও সুনীল নারাইন, বরুণ চক্রবর্তী ও ভেঙ্কটেশ আইয়ারকে ধরে রাখা হয়েছে। ৪৮ কোটি টাকা নিয়ে নিলামে খেলোয়াড় কিনতে নামবে কলকাতার দলটি।

যে চারজনকে কলকাতা নাইট রাইডার্স ধরে রেখেছে:

আন্দ্রে রাসেল (১২ কোটি টাকা)

বরুণ চক্রবর্তী (৮ কোটি টাকা)

ভেঙ্কটেশ আইয়ার (৮ কোটি টাকা)

সুনীল নারিন (৬ কোটি রুপি)

যে পাঁচ খেলোয়াড়কে দলে নেওয়ার জন্য নিলামে কলকাতা শিবির ঝাঁপাতে পারে:

ডেভিড ওয়ার্নার (সর্বোচ্চ ৫ কোটি টাকা):

দারুন ব্যক্তিত্ব ছাড়াও ডেভিড ওয়ার্নারের (David Warner) মধ্যে কেকেআর শিবিরকে নেতৃত্ব দেওয়ার গুণাবলীও রয়েছে। তাঁর নেতৃত্বেই সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ২০১৬ সালে আইপিএল শিরোপা জিতে নিয়েছিল। ইয়ন মর্গান এবং দীনেশ কার্তিক, উভয়কেই ফ্র্যাঞ্চাইজি ছেড়ে দেওয়ার পরে ওয়ার্নার কেকেআর-র নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য সঠিক ব্যক্তি হতে পারেন।

আরও পড়ুন: SunRisers Hyderabad New Jersey: নতুন জার্সিতে আইপিএলে মাঠে নামবেন সাইরাইজার্স হায়দরাবাদের খেলোয়াড়রা, দেখুন ছবি

শ্রেয়স আইয়ার (সর্বোচ্চ ৭ কোটি টাকা):

ওয়ার্নার ছাড়াও শ্রেয়স আইয়ার (Shreyas Iyer) হলেন অন্য একজন খেলোয়াড় যাকে নিলামের আগে প্রায় প্রতিটি দলই পর্যবেক্ষণ করছে। ব্যাট হাতে রান করা ছাড়াও শ্রেয়স একজন দুর্দান্ত নেতাও হতে পারেন। ২০২০ সালে দিল্লি ক্যাপিটালসকে ফাইনালে নিয়ে গিয়েছিলেন তিনি।

লকি ফার্গুসন (সর্বোচ্চ ৫ কোটি টাকা):

লকি ফার্গুসন (Lockie Ferguson) আইপিএলের শেষ দুই মরসুমে কেকেআর-র হয়ে খুব একটা কিছু করে দেখাতে পারেননি। মূলত চোট এবং প্যাট কামিন্সের দলে থাকার কারণে। যদিও, সুযোগ পেলেই তিনি কাজে লাগিয়েছেন। সে কারণেই কেকেআরের উচিত তাঁকে ফেরত নেওয়া।

দেবদূত পাদিক্কাল (সর্বোচ্চ ৪ কোটি টাকা):

শুভমান গিলকে কেকেআর-র ছেড়ে দেওয়া মতোই আরসিবি থেকে দেবদত্ত পাদিক্কালের (Devdutt Padikkal) প্রস্থানও ছিল একটি চমকপ্রদ। যেহেতু গিলকে গুজরাত টাইটান্স আগেই দলে নিয়ে নিয়েছে, তাই পাদিক্কাল কেকেআর শিবিরের জন্য পরিবর্ত আদর্শ ব্যক্তি হতে পারেন।

শাইক রশিদ (সর্বোচ্চ ৭৫ লাখ টাকা):

শাইক রশিদ (Shaik Rasheed ) ভারতের অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ দলের সহ-অধিনায়ক। তিনি এই টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন। বিগত কয়েক বছর ধরে কেকেআর তাদের মিডল অর্ডারে সঠিক লোকের অভাব পূরণ করতে চাইছে। তাই সেই অভাব পূরণ করতে পারেন রশিদ।