Gama Pehlwan Google Doodle: কুস্তিগীর গামা পালোয়ানের জন্মদিন বিশেষ ডুডলের মাধ্যমে উদযাপন গুগলের
Gama Pehlwan Google Doodle (Photo: Google)

কুস্তিগীর গামা পালোয়ানের (Gama Pehalwan) জন্মদিন বিশেষ ডুডলের (Doodle) মাধ্যমে উদযাপন করল গুগল (Google)। গামা প্রাক-স্বাধীন ভারতের অন্যতম বিখ্যাত কুস্তিগীর, একজন অপরাজেয় কুস্তি বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। তিনি দ্য গ্রেট গামা ছাড়াও রুস্তম-ই-হিন্দ নামেও পরিচিত ছিলেন। এমনকি ব্রুস লি-ও গামার প্রশংসক ছিলেন এবং গামার কন্ডিশনিংয়ের দিকগুলিকে তাঁর নিজস্ব প্রশিক্ষণের রুটিনে অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। ১৮৭৮ সালে অমৃতসরে জন্মগ্রহণ করেন গামা। তাঁর আসন নাম গোলাম মহম্মদ বক্স বাট (Ghulam Mohammad Baksh Butt)। সেই সময় তাঁর পরিবারের বেশিরভাগ পুরুষই ছিলেন কুস্তিগীর।

১৯১০ সালে তিনি বিশ্ব হেভিওয়েট খেতাব অর্জন করেন। ১০ বছর বয়স থেকে তাঁর অনুশীলনে ৫০০টি বৈঠক এবং ৫০০টি পুশ-আপ অন্তর্ভুক্ত ছিল। ১৮৮৮ সালে গামা একটি বৈঠক প্রতিযোগিতা জিতেছিলেন, যাতে উপমহাদেশ জুড়ে ৪০০ জনেরও বেশি কুস্তিগীর অংশগ্রহণ করেছিলেন, খুব অল্প বয়সেই তিনি খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। আরও পড়ুন: Viral: ৩৬ ঘণ্টা একটানা দোল খেয়ে রেকর্ড গড়লেন এই প্রৌঢ় (ভাইরাল ভিডিও)

গামার সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য কৃতিত্বের মধ্যে অন্যতম ছিল ১,২০০ কেজি ওজনের পাথর তোলা। ১৯০২ সালে তিনি এই কৃতিত্ব অর্জন করেন। পাথরটি এখনও বরোদা মিউজিয়ামে রাখা রয়েছে। তাঁর সবচেয়ে শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন রাহিম বখশ সুলতানিওয়ালা, তৎকালীন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন এই কুস্তিগীরের উচ্চতা ছিল ৭ ফুট। তিনি ৫ ফুট 8 ইঞ্চি উচ্চতার গামার সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। দুজনের মধ্যে চারবার সংঘর্ষ হয়েছিল, প্রথম তিনটিতে ড্র এবং শেষটিতে গামা জিতেছিলেন। প্রিন্স অফ ওয়েলস ভারত সফরে এসে গামাকে একটি রৌপ্য গদা উপহার দিয়েছিলেন। গামা তাঁর জীবনের শেষ দিনগুলি লাহোরে কাটিয়েছিলেন এবং ১৯৬০ সালে প্রয়াত হন।