International Yoga Day 2023 : বসে বসে কাজ করায় পেটে মেদ বাড়ছে! মুক্তি পেতে প্রতিদিন ১৫ মিনিটের জন্য এই যোগব্যায়াম করুন
Photo Credit Pixabay

কলকাতা: পেটে মেদ জমা বর্তমান সময়ে বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিশেষ করে যারা অফিসে ৮ থেকে ৯ ঘন্টা বসে কাজ করেন তাদের জন্য আরও সমস্যা হয়ে দাঁড়াচ্ছে।  পেটের মেদ  (Bally Fat) থেকে মুক্তি পেতে আপনাকে কিছু বিশেষ যোগাসন (Yoga) সম্পর্কে তথ্য দেওয়া হল। এটি নিয়মিত অভ্যাস করলে পেটের চর্বির সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এ ছাড়া এই অভ্যাসের আরও অনেক উপকারিতা রয়েছে। যেমন ঘাড় ব্যথা, কোমর ব্যথা, সার্ভিকাল, পেটের পেশী শক্তিশালী হয়।

ত্রিকোণাসন

ত্রিকোণাসন ওজন কমাতে সাহায্য করে। এটি পেট ও কোমরের মেদ ঝরিয়ে ফেলতে সাহায্য করে। সারা শরীরে রক্ত চলাচলের উন্নতি ঘটায়। এই আসনটি করলে উরুর চর্বিও ঝরে যায়।ঘাড়ের ব্যথা, টান, পিঠের ব্যথায় আরাম পাওয়া যায়।

ত্রিকোণাসন কিভাবে করবেন

এই যোগাসন করতে হলে দুই পা ছড়িয়ে দিতে হবে এবং হাত বাইরের দিকে খুলতে হবে। তারপর সোজা হাত ধীরে ধীরে সোজা পায়ের দিকে নামাতে হবে। এখন কোমর নিচের দিকে বাঁকিয়ে নিচের দিকে তাকাতে হয়। এর পরে, সোজা হাতের তালু মাটিতে রাখতে হবে এবং অন্য হাতটি উপরের দিকে নিতে হবে। একইভাবে, একই প্রক্রিয়া অন্য দিকেও পুনরাবৃত্তি করতে হবে। এই অবস্থায় যতটা সম্ভব গভীরভাবে শ্বাস নিতে হবে।

সেতুবন্ধাসন

আপনার শরীরের আকৃতি একটি সেতু মত করতে হবে। এটি পেটের চর্বি কমাতে সাহায্য করে।

কিভাবে করবেন সেতুবন্ধাসন

ইয়োগা ম্যাটের উপর শুয়ে পড়ুন। শ্বাস-প্রশ্বাসের হার স্বাভাবিক রাখুন। এর পরে, হাতগুলি পাশে রেখে ধীরে ধীরে আপনার পা হাঁটু থেকে বাঁকিয়ে নিতম্বের কাছে নিয়ে আসুন। মেঝে থেকে নিতম্ব যতটা সম্ভব উঁচু করুন। হাত মাটিতে থাকুক। কিছুক্ষণ শ্বাস আটকে রাখুন। পা সোজা করুন। ১০ থেকে ১৫ সেকেন্ডের বিশ্রাম করে আবার একইভাবে করুন।

ভুজঙ্গাসন

ওজন কমাতে এবং পেটের চর্বি কমাতে আপনি ভুজঙ্গাসন করতে পারেন। এই আসনের মাধ্যমে পেটের পেশী শক্তিশালী হয়। পেটের চর্বি সহজেই গলতে শুরু করে। জরায়ুর সমস্যাও এই যোগাসনে উপশম হয়,

ভুজঙ্গাসন কিভাবে করবেন

প্রথমে মেঝেতে শুয়ে পড়ুন। দুই হাতের তালু মাটির দিকে উরুর কাছে রাখুন। এর পরে, আপনার দুই হাতের তালু মেঝেতে রাখুন। আপনার শরীরের ওজন হাতের তালুতে রাখুন। শ্বাস নিন এবং আপনার মাথা তুলে পিছনের দিকে টানুন, মনে রাখবেন এই সময়ে আপনার কনুই যেন বাঁকা না হয়। এর পরে, আপনার মাথাটি পিছনের দিকে টেনে আনুন, অর্থাৎ, আপনাকে আপনার মাথাটি সাপের ফণার মতো টেনে আনতে হবে। প্রায় ১৫ থেকে ৩০ সেকেন্ড এই অবস্থানে থাকুন এবং শ্বাস-প্রশ্বাসের হার স্বাভাবিক রাখুন। আপনি এটি ২ মিনিটের জন্য করতে পারেন।