গরমের হাজারও সমস্যা থেকে চুলকে বাঁচাতে হলে এটা তো করতেই হবে
প্রতীকী ছবি(Photo Credit: Pexels)

গরমে খেয়ে ঘুমিয়ে সেজে কোনওভাবেই ঠিক শান্তি পাওয়া যায় না। সবসময়ই মনে হয় স্ক্যাল্পটা ঘেমে গেল, চুলকাচ্ছে, ব়্যাশও বেরতে পারে। সমস্যার শেষ নেই। তাই বলে তো আর ন্যাড়া হয়ে যেতে পারবেন না। চুলের যত্ন নিতেই হবে। এই অসহ্য ঘেমো গরমকে সামলে কী করে চুল বাঁচাবেন তারই উপায় রইল আজকের প্রতিবেদনে।

ইচি স্ক্যাল্‌প গরমে খুব কমন একটা সমস্যা। বেশির ভাগেরই হয়। এক্ষেত্রে ১ চামচ বেকিং পাউডার, ২ টেবিল চামচ জল মিশিয়ে স্ক্যাল্‌পে দিন সপ্তাহে একদিন। বেকিং পাউডার স্ক্যাল্‌প রিজুভিনেট করবে। খুশকিও রোধ করবে। চুলকানিভাব বন্ধ করবে। চুলপড়া গ্রীষ্মে একটি অন্যতম সমস্যা। কারও কম, কারও বেশি। চুল পড়েই। ঘাম জমে, পলিউশন, খুশকি এগুলো থেকে চুল পড়তে পারে।ঊষ্ণ তেল মাসাজ খুব কার্যকরী চুল পড়ার জন্য। নারকেল তেল বা আমন্ড অয়েল দুই-ই ভাল। যে কোনওটা দিয়ে মাসাজ করুন। নারকেলের দুধ চুলের জন্য ভীষণ পুষ্টিকর। আমলকীর রসও খুব ভাল চুলের জন্য। এই দুটোই চুল পড়া রোধ করে। আমলকীর রস মাথা ঠান্ডা রাখে। অ্যালোভেরা জু্স চুল পড়া রোধ করে। অ্যালোভেরা চুলেরও বৃদ্ধি ঘটায় দ্রুততার সঙ্গে। গ্রীষ্মে চুলের যাবতীয় সমস্যার সঙ্গে ফুড হ্যাবিটও জড়িত। স্বাস্থ্যকর চুলে প্রয়োজন প্রোটিন, ক্যালশিয়াম, মিনারেল সঠিক পরিমাণে যা রয়েছে শাকসবজিতে, দুধ, ডিম, মাছ, ফল ইত্যাদিতে। খাদ্যতালিকায় এগুলো অবশ্যই রাখুন। প্রচুর পরিমাণে জল এবং স্বাস্থ্যকর পানীয় খেতে হবে নিয়মিত।

গরমে যাঁরা বাইরে বেরোন বা বাড়িতে ঘরকন্না নিয়ে সারাদিন ব্যস্ত থাকেন, সকলকেই রোজ চুল ভেজাতে হবে। অন্তত সপ্তাহে চারদিন শ্যাম্পু করলে ভাল, সঙ্গে চুল প্লেন জলে ধুয়ে নিন। চুল খুব ভাল করে শুকিয়ে নিতে হবে। ভিজে চুল গরম লাগছে বলে বেঁধে নিলে চলবে না। কারণ বেঁধে রাখা ভেজা চুলের দুর্গন্ধ থেকে চুল ড্যামেজ হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা থাকে। চুল উঠতে শুরু করে। রোদে বেরনোর সময় স্কার্ফ দিয়ে মাথা, মুখ ঢেকে ফেলুন। সূর্যের রশ্মি যতটা ত্বকের ক্ষতি করে, ততটাই চুলের ক্ষতি করে। ইউভি প্রোটেক্টেড হেয়ার লোশন ব্যবহার করুন। চুল শুকিয়ে বাইরে বেরন। চুল যত ভিজে থাকবে, ততই ধুলো বসবে, ততই খুশকি, ডগা ফাটা, ফ্রিজিনেস, চুল পড়া বাড়তে থাকবে।