Uber Revokes Suspension Of Mumbai Driver: সিএএ বিরোধী কথা বলায় সমাজকর্মী বাপ্পাদিত্যকে থানায় নিয়ে যাওয়া উবের চালকের সাসপেনশন উঠল
উবের চালককে সম্মানিত করছে মুম্বইয়ের বিজেপি নেতৃত্ব (Photo Credits: ANI)

মুম্বই, ১২ ফেব্রুয়ারি: চলন্ত ক্যাবে বসে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী বিক্ষোভ নিয়ে কথা বলছিলেন। এই দেখে ক্যাব চালকের সন্দেহ হয়। তিনি সওয়ারির বয়ান মোবাইলে রেকর্ড করে নেন। তারপর নির্দিষ্ট গন্তব্যে না গিয়ে সোজা চলে যান মুম্বইয়ের সান্তাক্রুজ থানায়। সেখানে গিয়ে অভিযোগ করেন, তাঁর ক্যাবের যাত্রী দেশভাগের কথা বলছেন। যাত্রীকে গ্রেপ্তার করা হোক। ঘটনাক্রম গত বুধবারের। ওই যাত্রী হলেন জয়পুরের কবি সাহিত্যিক বাপ্পাদিত্য সরকার। বছর তেইশের সমাজকর্মী বাপ্পাদিত্য মুম্বইতে এসেছিলেন ২০২০ কালাঘোড়া ফেস্ট ইভেন্টে অংশ নিতে। সেই সঙ্গে মুম্বই বাগ এলাকায় যে সিএএ বিরোধী আন্দোলন চলছে সেখানেও তাঁর যোগ দেওয়ার কথা ছিল।

গাড়িতে বসে যখন অন্যান্যদের ফোন করে এই অনুষ্ঠান সম্পর্কে কতাবার্তা বলছিলেন ওই সাহিত্যিক তখনই তাঁকে নিয়ে থানায় হাজির হয়ে যান ক্যাব চালক রোহিত গৌড় (Rohit Gaur)। এই ঘটনা জানাজানি হতেই ক্যাব চালক সংস্থা উবের-এর তরফে রোহিত গৌড়কে বরখাস্ত করা হয়। প্রায় এক সপ্তাহ সাসপেনশনে থাকার পর গতকাল ফের চালকের আসনে ফিরেছেন রোহিত গৌড়। উবেরের তরফে দাবি করা হয়েছে যে গৌড়কে ফিরিয়ে নিলেও এখনি তাঁকে কাজ করতে দেওয়া হবে না। কীভাবে যাত্রীদের সঙ্গে আচরণ করতে হয় সেই শিষ্টাচার তাঁকে নতুন করে শিখতে হবে। সেজন্য সংস্থার যে নিজস্ব কর্মশালা রয়েছে সেখানেই নিয়মিত যাবেন গৌড়। সংস্থার মুখপাত্র জানান, উবেরের মূল লক্ষ্যই হল প্রতিদিন উচ্চমানের পরিষেবা তার যাত্রীকে প্রদান করা। এজন্য সংস্থার নির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে। যে কেউ উবের চালক হতে পারেন না। এই সংস্থায় যোগ দেওয়ার পর সেই চালককে কর্মশালায় অংশ নিতে হয়। যেখানে তাঁকে সেখানো হয় কীভাবে যাত্রীদের সঙ্গে আচরণ করবেন। নীতিমালা মেনে চালককে শিষ্টাচার শেখানো হয়। আরও পড়ুন-Delhi: রাজধানীতে আম আদমি পার্টির বিজয় মিছিল লক্ষ্য করে গুলি, মৃত ১ দলীয় সমর্থক

যাইহোক সেদিনের ঘটনায় গোটা মুম্বইতে আলোড়ন পড়েছিল। ক্যাব চালক রোহিত গৌড়ের কথা মেনে মুম্বই পুলিশে মোটেও সাহিত্যিক বাপ্পাদিত্য সরকারকে গ্রেপ্তার করেনি। জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। যদিও পুলিশকে গৌড় বলেছিলেন, বাপ্পাদিত্য সরকার দেশদ্রোহী, তিনি দেশভাগ নিয়ে আলোচনা করছিলেন। এরপরেই রোহিতকে সাসপেনশনে পাঠিয়ে দেয় উবের।