Snake Venom: এলভিসের বিরুদ্ধে FIR-এ তোলপাড়, সাপের বিষের নেশা কী? ভয়ানক এই নেশায় কী কী হতে পারে দেখুন
Snake (Photo Credits: Pixabay)

রেভ পার্টিতে সাপের ছোবল বড় নেশার মাধ্যম। রেভ পার্টিতে সাপের বিষ ও ৯টি বিষাক্ত সাপ রাখার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করা হয় বিগ বস খ্যাত জনপ্রিয় ইউটিউবার এলভিস যাদবের বিরুদ্ধে। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই তোলপাড় শুরু হয়েছে। কী এই সাপের বিষ? সাপের বিষ থেকে কী ধরনের নেশা করা হয়? এলভিস যাদবের নাম এ প্রসঙ্গে উঠে আসতেই তা নিয়ে জোর শোরগোল শুরু হয়েছে।

সাপের বিষের মাদক এবং তার উপসর্গ

সাপের ছোবলে যে বিষ থাকে, তা দিয়ে নেশা করলে, চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছে যেতে পারেন কেউ। কোনও কোনও সাপের ছোবলে নিউরোটক্সিক বলে একটি উপদান থাকে, যা শরীরে প্রবেশ করলে যন্ত্রণা অনুভূত হয়। নিউরোটক্সিক উপাদান যদি কারও শরীরে প্রবেশ করে, তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী যেমন ওষুধের প্রয়োজন, তেমনি নিয়মিত যোগ করে সেই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।

সাপের বিষের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কী

সাপের ছোবল নিয়ে অনেকে নেশা করলেও, দিনের শেষে সেটি বিষ হিসেবেই বিবেচিত হয়। তাই সাপের বিষের মাধ্যমে নেশা কখনওই উচিত নয়। এর ফলে যে কোনও সময়ে বিপদ ঘটে যেতে পারে বলেই মনে করেন চিকিৎসকরা। সাপের বিষের মাধ্যমে নেশা করলে, তা যদি অতিরিক্ত পর্যায়ে চলে যায়, তাহলে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। সাপের ছোবলের মাধ্যমে নেশা করেল, যেমন যে কোনও মুহূর্তে মৃত্যু হতে পারে, তেমনি সেই ব্যক্তির প্যারালিসিসও হতে পারে বলে সাবধান করেন চিকিৎসকরা।

সাপের বিষের নেশায় পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হলে কী করবেন

সাপের বিষের নশায় পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হলে, সেই ব্যক্তিকে অ্যান্টিভেনম দেওয়া হয়। অ্যান্টিভেনম যতক্ষণে কাজ শুরু করে, ততক্ষণে যে কোনও বিপদ হতে পারে। ফলে সাপের ছোবলের মাধ্যমে যাতে কেউ নেশা না করেন, সে বিষয়ে পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।