Masked Aadhaar: মাস্কড আধার ব্যবহার করে আপনার তথ্য সুরক্ষিত রাখুন এইভাবে

নয়াদিল্লি: আধার কার্ড (Aadhaar Card) প্রতিটি ভারতীয়ের অভিন্ন পরিচয়পত্র। বর্তমান এই ডিজিটাল যুগে আধার কার্ড ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ এবং অত্যাবশ্যক অবশ্যই। সরকারি হোক কিংবা বেসরকারি, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলা থেকে শুরু করে কোনও সরকারি প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধা লাভ ওঠানো, কিংবা আপনার প্রমাণপত্র হিসেবে কোনও নথি পেশ করা, সব কাজেই আধার কার্ড অপরিহার্য।

যাঁদের কাছে বৈধ আধার কার্ড আছে, তাঁরা অবশ্যই জানেন যে আধার কার্ড ১২ সংখ্যা আইডেন্টিটি নাম্বার থাকে, আর এঅ ১২ সংখ্যার বিশেষ আইডেন্টিটি নাম্বার জারি করে ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন অথরিটি অব ইন্ডিয়া বা সংক্ষেপে ইউআইডিএআই। আধার কার্ডে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি সম্পর্কে, আর নিরাপত্তা ও সুরক্ষাজনিত কারণ হিসেবে ধরলে এইসব তথ্য যেমন গোপনীয়, তেমনই সংবেদনশীল। বিশেষ করে এই ডিজিটাল যুগে গোপনীয়তা বজায় রাখা এবং তথ্য নিরাপদ রাখার জন্য ইউআইডিএআই কর্তৃপক্ষ একটি বিকল্পের সুযোগ দিচ্ছে প্রতিটি আধার কার্ড ধারককে। ভার্চুয়াল আইডি বা ভিআইডি অর্থাৎ মাস্কড আধার। এই ভার্চুয়াল আধার কার্ড ব্যবহারের সুবিধা কি? এখানেও ১২ সংখ্যার আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার রয়েছে, যা আপনি শেযার করতে পারবেন, অর্থাৎ যেখানে দরকার সেখানে নথি হিসেবে জমা করতে পারবেন, কিন্তু আপনার কোনও ব্যক্তিগত তথ্য প্রকাশ হবে না।

এই ভার্চুয়াল আধারা কার্ড বা মাস্কড আধার কার্ড আপনি ই-আধার হিসেবে ডাউনলোড করতে আপনাকে ইউআইডিএআই ওয়েবসাইট (UIDAI website) ভিজিট করতে হবে।

কিভাবে ডাউনলোড করবেন মাস্কড আধার বা ই-আধার?

যে কোনও ওয়েব ব্রাউজার থেকে ভিজিট করুন - https://eaadhaar.uidai.gov.in/

আপনার ১২ সংখ্যার আধার কার্ড নাম্বার দিন ‘আই ওয়ান্ট আ মাস্কড আধার’ লেখা স্থানে টিক অপশন সিলেক্ট করুন। এবার ক্যাপচা ভেরিফিকেশন কোড ইনপুট করে নিজেকে ভেরিফাই করুন। ‘সেন্ড ওটিপি’ অপশনে ক্লিক করুন,  এবার আপনার রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে আসা ওটিপি দিন ডাউনলোড অপশনে ক্লিক করে ই-আধার কপি ডাউলোড করুন।

ই-আধার পিডএফ হিসেবে ডাউনলোড হবে আপনার ডিভাইসে। ডাউনলোড হওয়া আধারকার্ডের পিডিএফ কপি পাসওয়ার্ড-প্রোটেক্টেড হয়। ফলে আপনি ছাড়া আর কেউ সেই পিডিএফ খুলতে পারবেন না (অবশ্যই যদি আপনি পাসওয়ার্ডটি  কারও কাছে শেয়ার না করে থাকেন)। ডাউনলোড হওয়া পিডিএফ-এর পাসওয়ার্ড কি? সেটাও খুবই সহজ, ইংরেজিতে বড় হরফ অর্থাৎ ক্যাপিটাল লেটারে আপনার নামের প্রথম চারটি অক্ষর এবং জন্মের সাল। ব্যাস এইভাবে খুব সহজে আপনার ই-আধার ডাউনলোড করুন এবং পাসওয়ার্ড-প্রোটেক্টেড পিডিএফ খুলে নিন। খুব সহজেই আপনি নিজের সমস্ত তথ্য গোপন রেখে আধার কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন। সবচেয়ে সুবিধা হলো, আপনাকে সঙ্গে করে আধার কার্ডের নিয়ে ঘুরতে হবে না। আপনি আপনার স্মার্টফোনেই এই ই-আধারের ডিজিটাল কপি সেভ করে রাখতে পারবেন। আরও পড়ুন : 

দেখুন টুইট

Citing misuse, UIDAI suggests sharing 'masked' Aadhaar instead of photocopies

Read more @ANI story | https://t.co/FgpTVbuxJp#AadharCard #UADAI pic.twitter.com/EgLq2cWysg

— ANI Digital (@ani_digital) May 29, 2022