Sanjay Raut Clarifies On Indira Gandhi-Karim Lala Comment: ‘যাঁরা দেশের ইতিহাস জানেন না তাঁরা বিরোধিতা করছেন’, ইন্দিরা গান্ধী সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করে ড্যামেজ কন্ট্রোলে সঞ্জয় রাউত
শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত(Photo Credits: ANI)

মুম্বই, ১৬ জানুয়ারি: প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন মুম্বইয়ের মাফিয়া ডন করিম লালার (Karim Lala) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন ইন্দিরা গান্ধী (Indira Gandhi)। বুধবার সংবাদ মাধ্যমের সামনে এহেন মন্তব্য করে বেজায় ফেঁসেছেন শিবসেনার মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। তিনি সাধারণত বলতে চেয়েছিলেন রাজনীতির সঙ্গে অপরাধ জগতের কারবারিদের যোগাযোগ রীতির পর্যায়ে পৌঁছেছে। তবে কেঁচো খুঁড়তে গিয়ে কেউটে বেরলে তো ছোবল খেতেই হবে। তাই রাউতের বক্তব্য প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়ে যায় চাপানউতোর। দিনভর উত্তেজনা চলার পর এদিন সংবাদ মাধ্যমের সামনে রীতিমতো হার স্বীকার করে নেন সঞ্জয় রাউত। ক্ষমা চেয়ে নিয়ে বলেন, যে তিনি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে শ্রদ্ধা করেন। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে তাঁর দাবি, বক্তব্যকে বিকৃত করা হয়েছে।

যাইহোক ড্যামেজ কন্ট্রোলে নেমে সঞ্জয় রাউত বললেন, “আমি কখনওই ইন্দিরা গান্ধীকে প্রশংসা করা থেকে সরে আসিনি। তিনি যা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সবই দেশের ভালর জন্য। যারা দেশের ইতিহাস জানে না, তারাই আমার মন্তব্যের বিরোধিতা করছে। আমি বলতে চেয়েছিলাম, করিম লালার সঙ্গে সেই সময় অনেকেই দেখা করতে যেতেন। ও পাঠান কমিউনিটির নেতা ছিল। তাই আফগানিস্তান থেকে আসা পাঠান কমিউনিটির মানুষের সুখদুঃখের কথা শোনার জন্য অনেক রাজনৈতিক নেতাই করিম লালার সঙ্গে দেখা করতেন।” ঠিক কী বলেছিলেন সঞ্জয় রাউত? তিনি বলেন, “একটা সময় ছিল যখন মুম্বইয়ের পুলিশ কমিশনার কে হবেন এবং মন্ত্রিসভায় কারা যাবেন তা ঠিক করত দাউদ ইব্রাহিম, ছোটা শাকিল, শরদ শেট্টির মতো মাফিয়ারা। যখন হাজি মস্তান মন্ত্রিসভায় আসে, তখন পুরো মন্ত্রিসভা নেমে এসেছিল তাকে দেখার জন্য। ইন্দিরা গান্ধী দক্ষিণ মুম্বইয়ে করিম লালার সঙ্গে দেখা করতেন।” আরও পড়ুন-Nirbhaya Rape And Murder Case: নির্ভয়ার ধর্ষক খুনি মুকেশের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করল দিল্লির সরকার

জোট বেঁধে মহারাষ্ট্রে সরকার গড়েছেন তাঁরা। অথচ কংগ্রেসের জোটসঙ্গী শিবসেনা কিনা ইন্দিরা গান্ধীকে নিয়ে এমন মন্তব্য করলেন। এনিয়ে শোরগোল পড়বে একেবারে স্বাভাবিক, হলও তাই। মহারাষ্ট্রের কংগ্রেস নেতা সঞ্জয় নিরুপম হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রাউতকে। তিনি বলেছেন, শিবসেনা নেতা নিজের মন্তব্য ফিরিয়ে না নিলে তাঁকে আফশোস করতে হবে। তিনি টুইটে বলেন, “যদি শিবসেনার মিস্টার কবি মহারাষ্ট্রের মানুষের জন্য হালকা ছন্দের কবিতা করেন তাহলেই ভাল। যদি তিনি ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে নিয়ে উল্টোপাল্টা কথা বলেন, তাহলে তাঁকে আফশোস করতে হবে।”