Congress Wants Grand Ram Temple in Ayodhya: কংগ্রেস চাইছে অযোধ্যায় বিরাটাকার রামমন্দির নির্মিত হোক, ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামলেন শচিন পাইলট

অযোধ্যার চূড়ান্ত রায় দিয়ে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট (Supreme court)। আর তারপর থেকেই বিভিন্ন রাজ্যে বোট প্রচারে গিয়ে বিজেপি নেতারা কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা (Article 370) বিলোপের পাশাপাশি এই অযোধ্যা প্রসঙ্গ (Ayodhya Verdict) তুলে বিরোধী কংগ্রেসকে খোঁচা মারছে। গতকাল লাতেহারে ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে একই পদ্ধতিতে ছক্কা হাঁকানোর চেষ্টা করেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, কংগ্রেস চাইলে অনেক আগেই অযোধ্যায় রামমন্দির তৈরি হত। কংগ্রেস সেই চেষ্টাই করেনি। ৫০০ বছরের পুরনো মামলাকে কংগ্রেস ইচ্ছে করে জিইয়ে রেখেছে। এই বলে যখন ভোটের ময়দানে বাজিমাত করতে চাইছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার।

রাজনীতি Shammi Huda|
Congress Wants Grand Ram Temple in Ayodhya: কংগ্রেস চাইছে অযোধ্যায় বিরাটাকার রামমন্দির নির্মিত হোক, ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামলেন শচিন পাইলট
শচিন পাইলট (Photo Credit: PTI)

জয়পুর, ২২ নভেম্বর: অযোধ্যার চূড়ান্ত রায় দিয়ে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট (Supreme court)। আর তারপর থেকেই বিভিন্ন রাজ্যে বোট প্রচারে গিয়ে বিজেপি নেতারা কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা (Article 370) বিলোপের পাশাপাশি এই অযোধ্যা প্রসঙ্গ (Ayodhya Verdict) তুলে বিরোধী কংগ্রেসকে খোঁচা মারছে। গতকাল লাতেহারে ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে একই পদ্ধতিতে ছক্কা হাঁকানোর চেষ্টা করেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, কংগ্রেস চাইলে অনেক আগেই অযোধ্যায় রামমন্দির তৈরি হত। কংগ্রেস সেই চেষ্টাই করেনি। ৫০০ বছরের পুরনো মামলাকে কংগ্রেস ইচ্ছে করে জিইয়ে রেখেছে। এই বলে যখন ভোটের ময়দানে বাজিমাত করতে চাইছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। ঠিক তখনই ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামলেন কংগ্রেস নেতা তথা রাজস্থানের উপ-মুখ্যমন্ত্রী শচিন পাইলট (Sachin Pilot)।

তিনি বলেন, “অযোধ্যায় বিরাট বড় রামমন্দির তৈরি হোক, এমনটাই চায় কংগ্রেস। সুপ্রিম রায়ের পর রাম জন্মভূমি অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের অধীর অপেক্ষায় রয়েছে জাতীয় কংগ্রেস। এরকম একটি স্পর্শকাতর রায়ে শেষপর্যন্ত রাজনৈতিক চিন্তাধারা বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি, এটা বড় বিষয়। অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রামমন্দির নির্মাণ সুপ্রিম রায়। এক্ষেত্রে অন্তত প্রত্যেকের শীর্ষ আদালতের রায় মেনে নেওয়া উচিত। এই বিষয়ে কোনওরকম রাজনীতি বন্ধ হওয়া উচিত। কংগ্রেস পার্টিও চায় অযোধ্যায় খুব শিগগির বিরাট রামমন্দির তৈরি হোক।” আরও পড়ুন-Maharashtra Resident Files Petition: জনগণের রায়কে অস্বীকার বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন উদ্ধব ঠাকরে, জোটের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মহারাষ্ট্রের আইনজীবী

বলাবাহুল্য, পূর্বতন ইউপিএ সরকারকে ঠুকে মোদি সরকারের কৃতিত্ব জাহির করে ভোটে জেতার ফর্মুলাটা বিজেপি নেতাদের বেশ পছন্দ। আর হবে নাই বা কেন, এই ফর্মুলা তো বেশ কাজে দিচ্ছে। মহারাষ্ট্র হরিয়ানাতে কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলোপ প্রসঙ্গ তুলে হিন্দুত্ব ইস্যু উসকে দিয়ে লাভের কড়ি ঘরে তুলে নিয়েছে বিজেপি। সামনে এখন ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচন। সেখানে

রাজনীতি Shammi Huda|
Congress Wants Grand Ram Temple in Ayodhya: কংগ্রেস চাইছে অযোধ্যায় বিরাটাকার রামমন্দির নির্মিত হোক, ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামলেন শচিন পাইলট
শচিন পাইলট (Photo Credit: PTI)

জয়পুর, ২২ নভেম্বর: অযোধ্যার চূড়ান্ত রায় দিয়ে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট (Supreme court)। আর তারপর থেকেই বিভিন্ন রাজ্যে বোট প্রচারে গিয়ে বিজেপি নেতারা কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা (Article 370) বিলোপের পাশাপাশি এই অযোধ্যা প্রসঙ্গ (Ayodhya Verdict) তুলে বিরোধী কংগ্রেসকে খোঁচা মারছে। গতকাল লাতেহারে ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে একই পদ্ধতিতে ছক্কা হাঁকানোর চেষ্টা করেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, কংগ্রেস চাইলে অনেক আগেই অযোধ্যায় রামমন্দির তৈরি হত। কংগ্রেস সেই চেষ্টাই করেনি। ৫০০ বছরের পুরনো মামলাকে কংগ্রেস ইচ্ছে করে জিইয়ে রেখেছে। এই বলে যখন ভোটের ময়দানে বাজিমাত করতে চাইছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। ঠিক তখনই ড্যামেজ কন্ট্রোলে নামলেন কংগ্রেস নেতা তথা রাজস্থানের উপ-মুখ্যমন্ত্রী শচিন পাইলট (Sachin Pilot)।

তিনি বলেন, “অযোধ্যায় বিরাট বড় রামমন্দির তৈরি হোক, এমনটাই চায় কংগ্রেস। সুপ্রিম রায়ের পর রাম জন্মভূমি অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের অধীর অপেক্ষায় রয়েছে জাতীয় কংগ্রেস। এরকম একটি স্পর্শকাতর রায়ে শেষপর্যন্ত রাজনৈতিক চিন্তাধারা বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি, এটা বড় বিষয়। অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রামমন্দির নির্মাণ সুপ্রিম রায়। এক্ষেত্রে অন্তত প্রত্যেকের শীর্ষ আদালতের রায় মেনে নেওয়া উচিত। এই বিষয়ে কোনওরকম রাজনীতি বন্ধ হওয়া উচিত। কংগ্রেস পার্টিও চায় অযোধ্যায় খুব শিগগির বিরাট রামমন্দির তৈরি হোক।” আরও পড়ুন-Maharashtra Resident Files Petition: জনগণের রায়কে অস্বীকার বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন উদ্ধব ঠাকরে, জোটের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মহারাষ্ট্রের আইনজীবী

বলাবাহুল্য, পূর্বতন ইউপিএ সরকারকে ঠুকে মোদি সরকারের কৃতিত্ব জাহির করে ভোটে জেতার ফর্মুলাটা বিজেপি নেতাদের বেশ পছন্দ। আর হবে নাই বা কেন, এই ফর্মুলা তো বেশ কাজে দিচ্ছে। মহারাষ্ট্র হরিয়ানাতে কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলোপ প্রসঙ্গ তুলে হিন্দুত্ব ইস্যু উসকে দিয়ে লাভের কড়ি ঘরে তুলে নিয়েছে বিজেপি। সামনে এখন ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচন। সেখানে ক্ষমতাসীন দল হওয়ায় প্রতিষ্ঠান বিরোধী হাওয়া ইকটু আধটু ঝাপটা দিচ্ছে। সেই ঝাপটা প্রতিহত করতে কাশ্মীর যথেষ্ট ছিল। উপরি পাওনা হিসেবে জুটে গিয়েছে অযোধ্যার রায়। গত ৯ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের বিদায়ী প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রামমন্দির নির্মাণের চূড়ান্ত রায় ঘোষণা করেন। এই রায় নিয়ে কোনওরকম অসন্তষ প্রকাশ করেনি সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড।

শহর পেট্রল ডিজেল
View all
Currency Price Change