PM Narendra Modi Takes Stinging Jibe At Rahul Gandhi:  ‘কিছু টিউব লাইটের জ্বলতে সময় লাগে’, লোকসভায় রাহুলকে মোক্ষম ঘা প্রধানমন্ত্রীর
লোকসভায় নরেন্দ্র মোদি (Photo Credits: ANI)

নতুন দিল্লি, ৬ ফেব্রুয়ারি: দেশের অর্থনীতি নিয়ে উদাসীন প্রধানমন্ত্রীকে (PM Narendra Modi) যুবকরা ডান্ডা মারবে। বৃহস্পতিবার লোকসভায় রাহুল গান্ধীর কটাক্ষের জবাব দিলেন নরেন্দ্র মোদি। রাহুলকে আক্রমণের সুযোগে এদিন কংগ্রেসকেও তুলোধনা করেন মোদি। রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) যে তাঁর কর্মকাণ্ডের কাছে একেবারেই শিশু, তা প্রমাণ করতে এক মুহূর্তও দ্বিধা করেননি প্রধানমন্ত্রী। নাম না করেই বলেন, ‘‘আমি গত কাল কংগ্রেসের এক নেতার ইশতাহারের কথা শুনছিলাম। তিনি বলেছেন ৬ মাসেই মধ্যেই মোদীকে ডান্ডা মারব। এটা সত্যি কাজটা কঠিন। ডান্ডা মারার কাজটা কঠিন বলেই ছ’মাস সময় লাগবে। তা ভাল। কিন্তু আমিও মনে করেছি এই ছ’মাসে সূর্য নমস্কারের সংখ্যা আরও বাড়াব।’’

এরপরই প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতার মাঝেই তাঁকে থামিয়ে দিয়ে বলতে যান রাহুল গান্ধী। ফের সরস ভঙ্গিতে মোদি বলেন, ‘‘আমি ৩০ থেকে ৪০ মিনিট ধরে বলছি। কিন্তু কারেন্ট পৌঁছতে এত দেরি লাগল।’’ এর পর কিছুক্ষণ থেমে রাহুলকে শেষ অস্ত্র প্রয়োগ করেন তিনি। বলেন, ‘‘কিছু টিউবলাইট আছে যার জ্বলতে এতটাই সময় লাগে।’’ এর পর রসিকতার মেজাজটা ধরে রেখেই আবেগতাড়িত কণ্ঠে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘গত ২০ বছর ধরে গালিগালাজ শুনে নিজেকে গালি প্রুফ তৈরি করেছি। আর এই ছ’মাসে এমন সূর্য নমস্কার করব যে নিজের পিঠ ডান্ডা-প্রুফ করে নেব।’’ আরও খোঁচা দিয়ে তিনি বলেন, ‘‘আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি, যে আমাকে ডান্ডা মারার কথা আগেই ঘোষণা করা হয়েছে। আমিও এই ছ’মাস ব্যায়াম করার সময় পাব।’’ টুকু বলার পরেই সরকার পক্ষের সাংসদদের মধ্যে হাসির রোল ওঠে। শুরু হয় ‘‘শেম শেম’’ ধ্বনিও। আরও পড়ুন-Rahul Gandhi Reacts To PM Modi's Address In Lok Sabha: নেহরু পাকিস্তান কংগ্রেস বাদ দিয়ে দেশের অর্থনীতির কথা ভাবুন, মোদিকে পাল্টা কটাক্ষ রাহুলের

এদিন বেকারত্ব নিয়ে প্রশ্নেরও জবাব দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি যখন সরকারের অর্থনৈতিক সাফল্যের বিবরণ দিচ্ছেন, বিরোধীরা চেঁচিয়ে বলেন, বেরোজগারি নিয়ে কিছু বলছেন না কেন? তিনি বলেন, “বিরোধীরা যে আমার ওপরে আস্থা রেখেছেন, সেজন্য আমি কৃতজ্ঞ।” পরে হেসে বিরোধীদের উদ্দেশে বলেন, “আমরা চাই, আপনারা বেকার হয়ে থাকুন।” বিষয়টি ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, “আমরা যত কঠিন পরিশ্রম করব, আপনারা তত বেকার হয়ে পড়বেন। আপনাদের করার কিছু থাকবে না।”