Chennai: হোটেল রুমে নিয়ে গিয়ে প্রেমিকাকে খুন, মৃতদেহের ছবি তুলে হোয়াটসঅ্যাপে স্ট্যাটাস, অভিযুক্ত যুবকের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর তথ্য
প্রতীকী ছবি

চেন্নাই, ২ ডিসেম্বরঃ হোটেল রুমে প্রেমিকাকে নিয়ে গিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠেছে প্রেমিকের বিরুদ্ধে। খুন করে প্রেমিকার মৃতদেহের ছবি হোয়াটসঅ্যাপে (WhatsApp) স্ট্যাটাসও দেন যুবক। সেই ছবি বন্ধু বান্ধবদের চোখে পড়তেই তড়িঘড়ি তাঁরা খবর দেয় পুলিশে। খোঁজ লাগিয়ে ওই হোটেলের হদিশ মেলে পুলিশ। হোটেলের রুম থেকেই তরুণীর নিথর দেহ উদ্ধার হয়। ঘটনাটি ঘটেছে চেন্নাইয়ের (Chennai) ক্রোমপেট এলাকায়।

আরও পড়ুনঃ স্কুল যাওয়ার পথে দুর্ঘটনা, মায়ের সামনে নির্মম মৃত্যু ১০ বছরের মেয়ের

ঘটনা প্রসঙ্গে পুলিশ জানিয়েছে, ফৌশিয়ার সঙ্গে সময় কাটাতে শনিবার সকালে ওই হোটেল রুমে যান প্রেমিক আশিক। কিন্তু সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি অন্যদিকে মোড় নেয়। অন্য মেয়ের সঙ্গে আশিকের ছবি ফোনে দেখতে পান ফৌশিয়া। সেই নিয়ে দুজনের মধ্যে অশান্তি শুরু হয়। যার পরিণতিতে টি-শার্ট দিয়ে ফৌশিয়াকে শ্বাসরোধ করে খুন করেন আশিক। গলায় টি-শার্ট পেঁচানো প্রেমিকার মৃতদেহের ছবি তুলে তা নিজের হোয়াটসঅ্যাপে স্ট্যাটাস (WhatsApp Status) দেন আশিক। এরপরেই তদন্ত শুরু করে পুলিশ।

তদন্তে নেমে দুজনের কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য জানতে পেরেছে পুলিশ। মৃতা ফৌসিয়া এবং অভিযুক্ত আশিক উভয় কেরলের (Kerala) কোল্লাম নিবাসী। ২০ বছরের তরুণ-তরুণী একে অপরের সঙ্গে পাঁচ বছর ধরে সম্পর্কে রয়েছেন। গোপনে দুজনে বিয়েও সেরেছিলেন। দম্পতির একটি সন্তান রয়েছে। যাকে তাঁরা পরবর্তীকালে অনাথ আশ্রমে রেখে আসেন। দুবছর আগে আশিকের সঙ্গে থাকবে না সিদ্ধান্ত নিয়ে বিচ্ছেদের মামলা করে ফৌশিয়া। কেরল পুলিশের কাছে আশিকের বিরুদ্ধে পকসো আইনের অধীনেও মামলা করেন প্রাক্তন স্ত্রী। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে জেলও খেটেছেন অভিযুক্ত আশিক। জেল থেকে বেরিয়ে ফৌশিয়ার কাছে ক্ষমা চান তিনি। মিটমাট হয় দুজনে। আর তারপরেই এমন কাণ্ডে হতবাক সকলে।