ঝাড়খণ্ডের ছায়া কানপুরে, জয় শ্রীরাম স্লোগান দিতে না চাওয়ায় কিশোরকে গণপ্রহার যোগীর রাজ্যে
জয় শ্রীরাম না বলায় কিশোরকে মার( Photo Credit-ANI)

কানপুর, ৩০ জুন, ২০১৯: জয় শ্রীরাম (Jai Shri Ram) স্লোগান তরজা এবার যোগীর রাজ্যেও। শ্রীরাম স্লোগান দিতে অস্বীকার করায় মারধরের ঘটনা ঘটল উত্তরপ্রদেশের কানপুরে(Kanpur)।  ১৬-র এক কিশোরকে মারধর করা হয়। কানপুরের কিদওয়াই নগরে নমাজ শেষে বাড়ি ফিরছিল মহম্মদ তাজ। তখনই তার উপর চড়াও হয়ে মারধর শুরু করে চার যুবক।শুক্রবার নামাজ সেরে ফেরার সময় মোটরসাইকেলে করে তিন বা চারজন যুবক তার পথ আটকায়। তাকে ঘিরে জয় শ্রীরাম স্লোগান দিতে থাকে। তারপর ওই কিশোরের উপর চাপ সৃষ্টি করে জয় শ্রীরাম বলানোর জন্য। কিন্তু মহম্মদ তাজ জয় শ্রীরাম বলতে অস্বীকার করায় তাঁকে কষিয়ে থাপ্পড় মারে যুবকরা।

ওই কিশোর জানায়, মাথায় ফেট্টি বাঁধা কয়েকজন যুবক তাকে মারধর করে। তাকে রাস্তায় ফেলে মারধর করা হয়। তখন সাহায্যের চিৎকার শুরু করে সে। তার আর্ত চিৎকার শুনে ছুটে আসেন স্থানীয় ব্যবসায়ী-দোকানদাররা। তাঁরা ছুটে এলে ওই তিন চার যুবক পালিয়ে যায়। দোকানদার-ব্যবসায়ীরাই তাঁকে উদ্ধার করে। আরও পড়ুন, তৃণমূল নেতা খুনে গ্রেপ্তার ১, ২৪ ঘণ্টার বনধ ঘিরে থমথমে চুঁচড়া

চার যুবকের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। পুলিশ চার যুবকের সন্ধানে তল্লাশি শুরু করেছে। কদিন আগেই কলকাতার উপকণ্ঠে এক শিক্ষককে ট্রেন থেকে ছুঁড়ে ফাল হয় জয় শ্রীরাম স্লোগান না দেওয়ায়। তারপর ঝাড়খণ্ডে এক যুবকের প্রাণ পর্যন্ত চলে যায় এই জয় শ্রীরাম স্লোগানের প্রকোপে। লোকসভা ভোট পর্ব থেকেই দেশজুড়ে জয় শ্রীরাম স্লোগানকে নিয়ে ছেলেখেলা শুরু করেছে বিজেপি। এমনকী ধর্মীয় স্লোগানকে শুধু রাজনৈতিক স্লোগান হিসেবে ব্যবহার করাই নয়, এই স্লোগানকে লোকসভায় পর্যন্ত টেনে নিয়ে গিয়ে কলঙ্কিত করা হয়েছে সংসদকে।