Singapore Covid: সিঙ্গাপুরে সক্রিয় করোনা আক্রান্ত ৫৬ হাজার ছাড়ল, ভিড় হাসপাতালে, বাধ্যতামূলক মাস্ক
Coronavirus (Photo Credit: File Photo)

ফের বিশ্বে করোনা ভাইরাস আতঙ্ক। চিনের পর এবার সিঙ্গাপুরে কোভিডের দাপট। সিঙ্গাপুরে সক্রিয় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৬ হাজার ছাড়িয়েছে। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। আরও আশঙ্কার হল বেশীরভাগ আক্রান্তদেরই হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজন পড়ছে। ফলে হাসপাতালগুলিতে ভিড় বাড়ছে। কোভিডের জন্য আলাদা ওয়ার্ড খোলা হচ্ছে।

সিঙ্গাপুর প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রকাশ্য জায়গায় মাস্কের ব্যবহার বাধ্যতমূলক করা হয়েছে। সিঙ্গাপুরের বাস, ট্রেন, বিমানে মাস্ক পরে সেখানকার বাসিন্দাদের সফর করতে দেখা যাচ্ছে। এই সময় বিদেশ থেকে বহু পর্যটক সিঙ্গাপুরে যান। কিন্তু এবার করোনার ভ্রুকুটিতে পর্যটনে আশঙ্কার কালো মেঘঙ সিঙ্গাপুরে।

এদিকে,শীতের মরসুমে ভারতও বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ভারতে এখন সক্রিয় কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৭০০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে পাঁচজন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। ফের থাবা বসাল কোভিড ১৯ (COVID 19)। কোভিডের থাবায় রবিবার কেরলে (Kerala) পরপর ৪ জনের মৃত্যু হলে, আতঙ্ক ছড়ায়। ফলে এবার থেকে ফের মাস্ক পরতে হবে বলে নির্দেশিকা জারি করে কর্ণাটক (Karnataka) সরকার। বিশেষ করে বয়স্কদের। যে সমস্ত বয়স্ক মানুষের কোমর্বিডিটি রয়েছে, তাঁদের ক্ষেত্রে মাস্ক বাধ্যতামূলক বলে জানানো হয় কর্ণাটকের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে।

কর্ণাটকের স্বাস্থ্যমন্ত্রী দীনেশ গুণ্ডু জানান, এবার থেকে গোটা রাজ্যের বয়স্কদের মাস্ক পরে তবেই বাড়ির বাইরে বের হতে হবে। কেরলে কোভিড ১৯-এ ৪ জনের মৃত্যুতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। এ বিষয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রক কড়া নজরদারি শুরু করেছে কর্ণাটক জুড়ে। ৬০ বছরের বেশি বয়স হলেই, তাঁদের মাস্ক পরে বাইরে বেরনো বাধ্যতামূলক বলে জানানো হয় কর্ণাটক সরকারের তরফে।