Kapil Sibal: হাত ছেড়ে সাইকেলে সিব্বল! কংগ্রেস ছেড়ে সমাজবাদী পার্টির টিকিটে রাজ্যসভায় মনোনয়ন কপিল-এর
Kapil Sibal. (Photo Credits: Twitter)

নতুন দিল্লি, ২৫ মে: আরও এক বড় নেতা হাত ছাড়লেন। কংগ্রেসের বহু যুদ্ধের সঙ্গী বর্ষীয়ান নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কপিল সিব্বল (Kapil Sibal) দল ছাড়লেন! কংগ্রেসের শীর্ষ নেতা দল ছেড়ে কপিল সিব্বল একেবারে সোজা সমাজবাদী পার্টির হয়ে রাজ্যসভায় মনোনয়ন জমা দিলেন। বিখ্যাত আইনজীবী কপিল সিব্বল গান্ধী পরিবারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে কংগ্রেসে বেশ কোণঠাসা ছিলেন। দিল্লির চাঁদনি চক থেকে জিতে একসময় সাংসদ হয়ে মনমোহন সিং মন্ত্রিসভায় গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রক পেয়ে কাজ করা কপিল সিব্বলকে আজ দেখা গেল লখনৌয়ে এসপি প্রধান অখিলেশ যাদবের সঙ্গে।

এরপরই কপিল রাজ্যসভায় সমাজবাদী পার্টির প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন। কপিল সিব্বল এখন সমাজবাদী পার্টির নেতা আজম খানের হয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা লড়ছেন। আরও পড়ুন: জ্ঞানব্যাপী, শাহী মসজিদের পর এবার ম্যাঙ্গালুরুতে প্রাচীন মসজিদের নিচে মিলল মন্দিরের কাঠামো (দেখুন ছবি)

দেখুন ভিডিও

অখিলেশকে পাশে নিয়ে সমাজবাদী পার্টির হয়ে রাজ্যসভায় মনোনয়ন জমা দিয়ে কপিল সিবল জানান, তিনি গত ১৬ মে কংগ্রেস ছেড়েছেন। সেদিন তিনি ইস্তফাপত্র কংগ্রেস সভানেত্রীর কাছে জমাও দিয়েছেন। ক দিন আগে হওয়া রাজস্থানে কংগ্রেসে চিন্তন শিবিরে কপিল সিব্বলকে দেখা যায়নি। আসলে কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দেগে তিনি একেবারেই কোণঠাসা ছিলেন।

২০০৪ ও ২০১৯-টানা দুটো লোকসভা ভোটে দিল্লির চাঁদনি চক কেন্দ্র থেকে কংগ্রেসের টিকিটে জিতে সাংসদ হয়েছিলেন কপিল সিব্বল। এরপর মোদী ঝড়ে উড়ে ২০১৪ লোকসভা ভোটে চাঁদনি চক থেকে কংগ্রেসের টিকিটে দাঁড়িয়ে তৃতীয় হন কপিল। এরপর ২০১৯ লোকসভায় তাঁকে আর প্রার্থী করেনি কংগ্রেস। তারপর থেকেই কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে শুরু করেন দুঁদে আইনজীবী কপিল। ১৯৯৮ সালে বিহার থেকে রাজ্যসভায় মনোনিত হয়ে রাজনৈতিক জীবন শুরু হয়েছিল তাঁর।