First and Last Countries To Enter New Year 2023: কোন দেশ প্রথম প্রবেশ করবে ২০২৩ এর ঘরে? কোন দেশের ভাগ্যে সর্বশেষ নববর্ষের উদযাপন?
First-and-Last-Countries-To-Enter-New-Year-2023

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের লোকেরা  নতুন বছরকে (Happy New Year 2023) স্বাগত জানায় তাদের মত করে। কিন্তু প্রশ্ন হল আমরা কি সবাই একই সময়ে নববর্ষের উদযাপন করি?  সময়ের পার্থক্যে কোন দেশের ঘড়িতে আগে বাজে ১২ টা ? কোন দেশ ২০২৩ সালে প্রথম প্রবেশ করে এবং ২০২৩ সালে প্রবেশ করা শেষ দেশটিই বা কোন দেশ?হয়ত এমন কিছু  দেশ যখন নতুন বছরকে স্বাগত জানাবে তখন হয়ত আপনি ঘুমিয়ে থাকবেন। নববর্ষের সন্ধ্যায় আজ জেনে নেব সেই সময়ের উলট পুরাণ।

নতুন বছর,১ জানুয়ারি ঘড়ির কাঁটা যখন মধ্যরাতে ১২টার কাঁটা পেরিয়ে যায় তখনই আমরা উদযাপন করি কিন্তু এই উদযাপন নির্ভর করে আন্তর্জাতিক তারিখ রেখার ওপর।

আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা কি?

আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা বা ইন্টারন্যাশনাল ডেট লাইন (IDL) হল একটি কাল্পনিক রেখা যা উত্তর মেরু থেকে দক্ষিণ মেরু পর্যন্ত প্রশান্ত মহাসাগরের মাঝখানে বিস্তৃত। লাইন সোজা নয়। এটি সমুদ্রের মধ্য দিয়ে অতিক্রম করার জন্য তৈরি করা হয়েছিল যাতে দেশগুলিকে কয়েক কিলোমিটারের মধ্যে একাধিক তারিখ-জোনের মধ্য দিয়ে যেতে না হয়।

জানেন কি বিশ্বের প্রথম কোন দেশ নববর্ষকে বরণ করে নেয় ?

ঝিনুকে ঘেরা ছোট্ট একরত্তি দেশ কিরিবাটি। ৩৮৮ বর্গ কিলোমিটারের কিছু বেশি এলাকা নিয়ে ক্ষুদে এক দেশ কিরিবাটি। ২০২২ সালকে বিদায় জানাতে প্রস্তুত সব দেশ। এই ছোট্ট কিরিবাটিই সবার প্রথমে স্বাগত জানাতে চলেছে ২০২৩ সালকে। অবাক হচ্ছেন শুনে? যদিও এটাই সত্যি।

টোঙ্গা, সামোয়া এবং কিরিবাটি বা ক্রিসমাস দ্বীপের ছোট প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ দেশগুলি প্রথম নববর্ষকে স্বাগত জানায়। দ্বীপ কিরিবাটির অন্যতম শহর কিরিটিমাটির বর্ষ বরণ কিন্তু ঢাকা পড়ে যায় সিডনি, নিউইয়র্ক, টোকিও, লন্ডনের রোশনাই জৌলুসে। কিন্তু কেন এই দেশগুলি প্রথম নিউইয়ারকে স্বাগত জানাতে পারে, এর পিছনে রয়েছে বিশেষ কারণ। কিরিবাটি আন্তর্জাতিক তারিখ রেখার পশ্চিমাংশের সবচেয়ে কাছে অবস্থিত। ১৯৯০ সালের আগে আন্তর্জাতিক তারিখ রেখা কিরিবাতির ওপর দিয়ে যেত, যার ফলে কিরিবাটির দুই অংশে থাকত দুই তারিখ। পরে আন্তর্জাতিক তারিখ রেখাটি কিরিবাতির সর্বপূর্বের দ্বীপ থেকে প্রায় আড়াই হাজার কিলোমিটার দূরে সরিয়ে নেওয়া হয়। ফলে কিরিবাটি জুড়ে এখন একটি তারিখই থাকে। সবার আগে সামোয়ার সঙ্গে পুরো কিরিবাটি উদযাপন করতে পারে ইংরেজি নববর্ষ। ভৌগোলিক কারণে লন্ডনের গ্রিনিচ মেন টাইম (GMT) থেকে ১৪ ঘন্টা এগিয়ে থাকা কিরিবাটি দ্বীপের কিরিটিমাটি শহরেই বিশ্বে প্রথম ক্যালেন্ডারের পাতা নতুন বছরে ঢুকে পড়ে। বদলে যায় সাল তারিখ।

এরপরেই নতুন বছরকে হ্যালো বলবে নিউজিল্যান্ড। GMT অনুযায়ী সকাল ১০.১৫তে নতুন বছর প্রবেশ করবে এই দেশে। ব্রিটেন নতুন বছর উদযাপনের শেষ দেশগুলির মধ্যে একটি। ভারত, আয়ারল্যান্ড, আইসল্যান্ড, ঘানা এবং পর্তুগালের মতো একই সময়ে নিউইয়ারকে স্বাগত জানাতে পারবে।

নতুন বছরকে স্বাগত জানানোর শেষ জায়গাটি হল প্রশান্ত মহাসাগরের দুটি মার্কিন দ্বীপপুঞ্জ বেকার দ্বীপ এবং হাওল্যান্ড দ্বীপ।