ভারত জুড়ে তৈরি হবে ১৪০০ কিমি ' গ্রিন ওয়াল', ২৫০ মিলিয়ন টন কার্বন ডাই অক্সাইড নির্মূল করবে এই সবুজ প্রাচীর
Image Used For Representational Purpose Only. (Photo Credits: Wikipedia)

নতুন দিল্লি, ৯ অক্টোবর: ভারতে (India) তৈরি হচ্ছে ১৪০০ কিলোমিটার ' গ্রিন ওয়াল। (Green Wall)' এবার এমনই পরিকল্পনা (Project) নিতে চলেছে ভারত সরকার (Government)। যে সবুজ প্রাচীরটির দৈর্ঘ্য হবে ৫ কিলোমিটার। গুজরাত থেকে দিল্লি-হরিয়ানা (Gujrat TO Delhi-Hariyana) সীমান্ত পর্যন্ত বিস্তৃত হবে এই প্রাচীর। এমনই রয়েছে পরকল্পনা। জানা গিয়েছে, ডাকার (সেনেগাল) থেকে জিবুতি পর্যন্ত বিস্তৃত করা হবে এই "গ্রেট গ্রিন ওয়াল"কে। এই দেওয়াল তৈরি হলে ২০৩০ সালের মধ্যে ১০০ হেক্টর জমিকে ভূমিক্ষয়ের (Land Erosion) হাত থেকে রক্ষা করা সম্ভব হবে। নির্মূল করা সম্ভব ২৫০ মিলিয়ন টন কার্বন-ডাই-অক্সাইড। তৈরি হবে ১০ মিলিয়ন সবুজ (Green)। তাই এই 'গ্রেট গ্রিন ওয়াল' প্রকল্প সম্পূর্ণভাবে তৈরি করা ভারত সরকারের পক্ষে অন্যতম বড় চ্যালেঞ্জ। এই সবুজ প্রাচীরটি তৈরি হলে বিশ্বের বৃহত্তম মহাদেশের প্রস্থ জুড়ে ৮ হাজার কিলোমিটার প্রাকৃতিক বিস্ময় হিসেবে স্থান পাবে এটি।

কেন নেওয়া হচ্ছে এমন পরিকল্পনা? বিশ্ব উষ্ণায়নের (Global Warming) ফলে ক্রমাগত জলবায়ুর পরিবর্তন (Climate Change) ঘটছে। ফলে ধীরে ধীরে পরিবেশ হারাচ্ছে তার ভারসাম্য। ক্রমশ ভয়াবহতার করাল গ্রাসে যেতে বসেছে পৃথিবী। অস্তিত্বহীনতার মুখে পড়তে চলেছে জীবকূল। সেই কারণেই এমনভাবে সবুজের বিস্তার ঘটাতে তৎপর হয়ে উঠেছে কেন্দ্রীয় সরকার। আরও পড়ুন- Rafale Jet: দেশের অস্ত্রাগারে রাফাল যোগ- ফ্রান্সে রাফাল জেটের আনুষ্ঠানিক হস্তান্তরে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং

তবে জানা গিয়েছে, যদিও এই পরিকল্পনা খুব একটা এগোয়নি। এখনও পর্যন্ত এই পরিকল্পনা প্রাথমিক স্তরেই রয়েছে। কিন্তু এই পরিকল্পনা নিয়ে যথেষ্ট উৎসাহী কেন্দ্রের বিভিন্ন মন্ত্রক। বিভিন্ন মন্ত্রকের আধিকারিকদের মধ্যেও এই পরিকল্পনা নিয়ে যথেষ্ট উদ্বেগ রয়েছে। তাঁদের বিশ্বাস, প্রকল্পটি অনুমোদিত হলে, ভূমি অবক্ষয় মোকাবিলার করা সম্ভব হবে। এছাড়া ভারতের পূর্বে অবস্থিত থর মরুভূমিকেও (Thar Dessrt) রক্ষা করাও সহজতর হবে।