বিছানায় মিলনে লিপ্ত ২ সাপ, না দেখেই বসে পড়ে নিজের মৃত্যু ডেকে আনলেন গৃহবধূ
প্রতীকী ছবি(Photo Credit: PTI)

গোরক্ষপুর, ১২ সেপ্টেম্বর: ফোনে কথা বলতে বলতেই বিছানায় বসে পড়েছিলেন গৃহবধূ। ঠিক সেই জায়গায় যেখানে দুটি শাপের শঙ্খ লেগেছে। তাদের বিশেষ মুহূর্তে এই অযাচিত নাক গলানো মোটেই ভাল লাগেনি। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই কামড় পড়ল গৃহবধূর শরীরে। ঘটনাস্থলেই মহিলার মৃত্যু হয়েছে। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষপুরের রিয়ানভ গ্রামে। মৃত মহিলার নাম গীতা। তাঁর স্বামী জয় সিং যাদবের সঙ্গেই ফোনে কথা বলছিলেন, স্বামী কর্মসূত্রে থাইল্যান্ডে থাকেন। জোড়া শাপ যে কখন চৌকাঠ পেরিয়ে ঘরে ঢুকে গিয়েছে জানতেনই না গৃহবধূ গীতা। শুধু ঘরে ঢোকাই নয়, সোজা গিয়ে বিছানায় উঠে প্রাচীন খেলায় মেতেছিল সাপজোড়া। বিছানা চাদর ছিল ছাপার, গীতাদেবী বুঝতেও পারেননি কী ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটছে।

দূর দেশে থাকেন স্বামী, দেখা সাক্ষাৎ হয় কচ্চিৎ। তাই একমাত্র ফোনই ভরসা। থাইল্যান্ড থেকে স্বামী ফোন করেছিলেন কথা বলতে বলতে বাড়ির মধ্যেই হেঁটে চলে বেড়াচ্ছিলেন গীতা। কখন যে ঘরে ঢুকে বিছানায় বসলেন, আর বসবি তো বস সেই সাপের উপরেই। সঙ্গে সঙ্গে কামড়, তীব্র বিষের প্রভাবে অচেতন হয়ে পড়েন ও গৃহবধূ। পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা তড়িঘড়ি তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসা চলাকালীনই তাঁর মৃত্যু হয়। আরও পড়ুন-তরুণী যাত্রীকে দেখিয়ে দেখিয়ে অটো চালকের হস্তমৈথুন ও অশালীন ইঙ্গিত, মালাড থেকে গ্রেপ্তার অভিযুক্ত

এদিকে চিকিৎসকরা যখন জরুরি বিভাগ থেকে বেরিয়ে গীতাদেবীর মৃত্যুর খবর দিচ্ছেন, তখন গোটা পরিবার শোকে মুহ্যমান। দেহ ময়নাতদন্তের জন্য় নিয়ে যাওয়া হলে পরিবারের সদস্যরা বাড়িতে ফিরে আসেন। তখনও বিছানায় খেলে বেড়াচ্ছে দুই সাপ। এই দৃশ্য আর সহ্য হয়নি স্বজন হারানোর দুঁখে ভেঙে পড়ে গোটা পরিবার। ক্ষিপত্ প্রতিবেশীরা সাপ দুটিকে পিটিয়েই মেরে ফেলে। খবর পেয়ে প্রাণী বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, বিছানার উপরে সাপ দুটির শঙ্খ লেগেছিল, তাদের মিলনপর্ব চলছিল। সেই সময়ই তাদের উপরে বসে পড়েন গীতাদেবী। আর এই মর্মান্তিক পরিণতি ঘটে।