Family Dies While Saving Cat: বেড়ালকে বাঁচাতে গিয়ে কুয়োয় পড়ে একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু
Wadki village Abandoned Well (Photo Credit: ANI/ X)

আহমেদনগর,মহারাষ্ট্রঃ ১০ এপ্রিল মঙ্গলবার রাতে ওয়াডকি গ্রামের একটি পরিত্যক্ত কুয়োয় পড়ে যাওয়া একটি বেড়ালকে বাঁচাতে গিয়ে একই পরিবারের পাঁচজন প্রাণ হারিয়েছেন। বায়োগ্যাস পিট হিসেবে ব্যবহৃত ওই কুয়োয় পশুর বর্জ্য ছিল বলে জানা গেছে। প্রাপ্ত খবর অনুসারে, মঙ্গলবার বিকেল ৫টা নাগাদ একটি পড়ে যাওয়া বেড়ালকে উদ্ধার করতে কুয়োর ভিতরে ঢুকে পড়েন তাঁরা। আহমেদনগরের নেভাসা থানার সিনিয়র পুলিশ অফিসার ধনঞ্জয় যাদব বলেন, 'একটি বেড়ালকে উদ্ধার করতে গিয়ে পশুর বর্জ্যে ভরা পরিত্যক্ত কুয়োর মধ্যে একের পর এক ঝাঁপ দেওয়া ছয়জনের মধ্যে পাঁচজনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে উদ্ধারকারী দল।' কুয়োয় জমা বিষাক্ত গ্যাসেই তাঁদের এই পরিণতি বলে মনে করা হচ্ছে তবে,  কোমরে দড়ি বেঁধে কুয়োয় নামা এক ব্যক্তি বেঁচে যান এবং পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। তিনি নিকটস্থ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনার তদন্ত চলছে। Chhattisgarh Accident:ছত্তিশগড়ে এক পথ দুর্ঘটনায় তিন মহিলা সহ ১২ জনের মৃত্যু, ঘটনায় শোক প্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর

মৃতদের নাম মানিক কালে (৬৫), মানিকের ছেলে সন্দীপ (৩৬), অনিল কালে (৫৩), অনিলের ছেলে বাবলু (২৮) ও বাবাসাহেব গায়কোয়াড় (৩৬)। যিনি উদ্ধার পেয়েছেন তিনি মানিকের ছোট ছেলে বিজয় (৩৫)। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পুনে থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার এবং আহমেদনগর জেলা সদর থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে নেভাসা তালুকের ভাকাদি গ্রামে বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, একটি বেড়াল পরিত্যক্ত কূপে পড়ে ভেতরে আটকা পড়ে। ওই পরিবার বেড়ালটিকে এবং পরে একে অপরকে উদ্ধার করতে কুয়োয় ঝাঁপিয়ে পড়েন, তবে পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। পথচারীরা তাদের একজনের শ্বাসকষ্টের ফলে গোঙানির শব্দ শুনে কিছুক্ষণের মধ্যেই পুলিশ ও বিশেষজ্ঞদের খবর দেয়, এরপরই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় উদ্ধারকারী দল ও পুলিশ।