Waheeda Rehman : 'মুসলিম' বলেই ওয়াহিদাকে ফিরিয়ে দেন নৃত্যগুরু, আবেগপ্লুত অভিনেত্রী
ওয়াহিদা রহমান (ছবি ইনস্টাগ্রাম)

মুম্বই, ২৮ মার্চ : মুসলিম বলেই তাঁকে ফিরিয়ে দেন নৃত্যগুরু। ওয়াহিদাকে (Waheeda Rehman) কোনওভাবেই নাচ শেখাতে পারবেন না বলে জানিয়ে দেন তাঁর ভরতনাট্যম শিক্ষিকা। সম্প্রতি একটি রিয়্যালিটি শোয়ের মঞ্চে হাজির হয়ে নিজের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন বলিউডের (Bollywood) বর্ষীয়ান অভিনেত্রী।

তিনি বলেন, চেন্নাইতে তাঁর ছোটবেলা কাটে। ওই সময় মীনাক্ষী সুন্দরম পিল্লাই নামে এক নৃত্যগুরুর কাছে তালিম নেবেন বলে স্থির করেন। ওয়াহিদা যতই মীনাক্ষীকে মনে মনে নৃত্যগুরু মানুন না কেন, তাঁকে ফিরতে হয় খালি হাতে। ওয়াহিদা মুসলিম (Muslim) পরিবারের মেয়ে, তাই তাঁকে কোনওভাবেই মীনাক্ষি তাঁর ছাত্রী করতে পারবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন।

আরও পড়ুন : Holi 2021 : দেদার নাচ, গান, রংয়ের উৎসবে মাতোয়ারা অপরাজিতা, মনামী, এনারা

নৃত্যগুরু তাঁকে ছাত্রী (Student) করতে নারাজ হলেও, হাল ছাড়েননি ওয়াহিদা। নিজের বন্ধুদের মীনাক্ষির কাছে পাঠাতে শুরু করেন তিনি। তাঁর মায়ের বন্ধুরাও মীনাক্ষির কাছে যান। এরপরই মীনাক্ষী জানান, ভরনাট্যমে (Bharatanatyam) এমন কিছু শৈলী রয়েছে, যা কোনওভাবেই ওয়াহিদা করতে পারবেন না। মীনাক্ষি যতই না করুন না কেন, ওয়াহিদা নাছোড় ছিলেন।

আরও পড়ুন : West Bengal Assembly Elections 2021: 'বাংলায় পরিবর্তন আসছে ', দাবি মিঠুনের

এপর ওয়াহিদার কুণ্ডলি চেয়ে পাঠান কিন্তু মুসলিমদের মধ্যে কুণ্ডলি তৈরি করা হয় না জন্মের পর। ওয়াহিদার পরিবারের তরফে সেই কথা জানানো হয় মীনাক্ষিকে। ওই কথা জানার পর ওয়াহিদার জন্ম তারিখ জেনে নিয়ে নিজেই কুণ্ডলি তৈরি করে নেন। ওই কুণ্ডলি থেকেই মীনাক্ষি জানতে পারেন, ওয়াহিদা তাঁর সেরা ছাত্রী হবেন। এমনকী, ওয়াহিদা তাঁর শেষ ছাত্রী হবেন বলেও জানান মীনাক্ষি। কুণ্ডলির সেই গণনা দেখে কার্যত অবাক হয়ে যান প্রত্যেকে।

রিয়্যালিটি শোয়ের মঞ্চে ওয়াহিদা রহমান যখন তাঁর অভিজ্ঞাতার কথা তুলে ধরেন,তা শুনে চোখ ছলছল করে ওঠে প্রত্যেকের।