Junior Doctor Commits Suicide: স্বামীকে চার মাস দেখেননি, এবার আত্মঘাতী ডেন্টাল কলেজের জুনিয়র ডাক্তার
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: Pixabay)

কলকাতা, ২৩ জুলাই: মহামারী করোনাভাইরাস যে কত জীবন কাড়বে তার ইয়ত্তা নেই। সবাই যে মারণ ভাইরাসের প্রত্যক্ষ বলি হচ্ছেন, তা-ও নয়। ভাইরাস রুখতে লকডাউন চলছে। তাতেই অনেকে হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়ছেন বেছে নিচ্ছেন চরম পরিণতির পথ। ফের এমনই একটি ঘটনা ঘটল খাস কলকাতার বুকে। বৃহস্পতিবার দুপুরে হস্টেলের ঘরে আত্মঘাতী হলেন এক মহিলা জুনিয়র ডাক্তার (junior doctor commits suicide)। এদিন বেলা সোয়া একটা নাগাদ চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটে আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজের লেডিস হস্টেলে। মৃতের নাম মানসী মণ্ডল (২৬)। তিনি আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের পিজিটির ছাত্রী। পুরুলিয়ার বাসিন্দা মানসী পড়তেন উত্তরবঙ্গ ডেন্টাল কলেজে। পরে  ম্যাক্সিলোফেসিয়াল সার্জারির জন্য স্নাতকোত্তর কোর্স করতে আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজে চলে আসেন।

জানা গিয়েছে, আজ সকাল নটা নাগাদ ক্লাসের বন্ধুদের ফোন করে মানসী বলেন, ক্লাসে যেতে দেরি হবে। এখনই যাচ্ছেন না। কয়েকটা অষুধ খাওয়ার আছে। সেসব মিটলে তারপর যাবেন। বেড়া গড়িয়ে দুপুর হলেও ক্লাসে মানসীর দেখা মেলেনি। এরপরেই বন্ধুরা চিন্তিত হয়ে পড়েন। শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। খবর যায় হস্টেল সুপারের কাছে। তিনিও মানসীর রুমের দরজা বহুক্ষণ ধাক্কাধাক্কি করে কোনও উত্তর না পেয়ে কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান, এন্টালি থানায় খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে দরজা ভাঙলে দেখা যায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন ওই জুনিয়র ডাক্তার। আরও পড়ুন-Viral: কী কাণ্ড! করোনার বাজারে শেষে টাকার বান্ডিল নিয়ে পালাচ্ছে বিড়াল(দেখুন ভিডিও)

পুলিশ জানিয়েছে, মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন ওই চিকিৎসক। জীবনের প্রতি আসক্তি হারিয়ে ফেলেছিলেন। লকডাউনের কারণে বেঙ্গালুরুতে থাকা স্বামীর সঙ্গে চারমাস তাঁর দেখা হয়নি। এই ঘটনাটি কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলেন না। ক্লাসের প্রায় সব পড়ুয়াই তা জানতেন। ডেন্টাল কলেজকে কোভিড হাসপাতাল করা হবে। এনিয়েই আজ বৈঠক চলছিল। তখনই খবরটি ছড়ায়।