'Jai Shri Ram': রাজ্য বিধানসভায় কংগ্রেসের আসন থেকে উঠল 'জয় শ্রী রাম' স্লোগান, জানেন কোন বিধায়ক এমন করলেন
ঘুরে দাঁড়তে চাইছে কংগ্রেস। (Image Credit: Facebook/ফাইল চিত্র)

কলকাতা, ২৬ জুন: দেশের রাজনীতি বিশেষ করে বাংলায় এখন সবচেয়ে চর্চিত স্লোগান হল 'জয় শ্রী রাম'। বিজেপি-র এই স্লোগানে মেজাজ হারিয়ে দেশের মিডিয়ায় খবর হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (CM Mamata Banerjee)। বিজেপি-র এই 'জয় শ্রী রাম'-এর বিরোধিতায় একসুরে নেমেছে তৃণমূল, সিপিএম, কংগ্রেস। জয় শ্রী রাম স্লোগানের নামে বিজেপি- নেতা কর্মীদের খারাপ আচরণ নিয়ে গোটা দেশজুড়েই আন্দোলনে নামছে কংগ্রেস। কিন্তু কংগ্রেসের এই বিরোধিতার সুরের মাঝেই তাল কাটল। রাজ্য বিধানসভায় কংগ্রেসের জন্য বরাদ্দ আসন থেকেই উড়ে এল জয় শ্রী রাম স্লোগান।

কিন্তু বিজেপি-র এই স্লোগান কংগ্রেসের আসন থেকে কে তুললেন? রাজ্যে বিজেপি-র ব্যাপক বৃদ্ধির পর কংগ্রেসের একাংশের মধ্যে তৃণমূল বিরোধী সুর অনেকটাই নরম হয়েছে। বিজেপি যেভাবে ধর্মের নামে হিংসা ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ উঠছে, তাতে মমতা ব্যানার্জির হাত শক্ত করার পক্ষেই কংগ্রেসের একাংশ। আরও পড়ুন-মুকুল রায়ের কাছে ধাক্কার পর ধাক্কা খেয়ে, এখন যে কারণে তৃণমূলের মুখে হাসি ফিরছে

যদিও লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরী রাজ্যে এখনও তৃণমূলকেই প্রধান শত্রু হিসেবে দেখছেন। তবু দেশ তথা রাজ্য রাজনীতিতে প্রাসঙ্গিক হতে হলে বিজেপি-র বিরুদ্ধে আপোষহীন লড়াই করতে হবে কংগ্রেসকে। বাংলায় 'জয় শ্রী রাম' স্লোগান নিয়ে চলা রাজনীতির বিরোধিতা করতে রাস্তায় নামার পরিকল্পনা রয়েছে। তার মাঝেই রাজ্য বিধানসভায় কংগ্রেসের কক্ষ থেকে 'জয় শ্রী রাম' স্লোগান উড়ে আসার ঘটনায় বিরক্ত বর্ষীয়ান নেতা আব্দুল মান্নান।

তবে এটা ঠিক কংগ্রেসের কক্ষে বসে যে বিধায়ক এই জয় শ্রী রাম স্লোগান তুললেন তিনি এখন হাত ছেড়ে বিজেপি-তে যোগ দিয়েছেন। তবু নিয়ম মেনে সেই বিধায়ককে কংগ্রেসের পরিষদীয় কক্ষেই বসতে হচ্ছে। জয় শ্রী রাম স্লোগান তোলা সেই বিধায়ক হলেন বাগদার দুলাল বর। যিনি গত কয়েক বছর রাজ্য়ের তিনটি বড় দলে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে নাম লিখিয়েছেন। কংগ্রেস থেকে প্রথমে তৃণমূল, পরে আবার বিজেপিতে যোগ দেন বাগদার বিধায়ক দুলাল বর। দলত্যাগী দুলাল বরের ওপর প্রথম থেকেই বিরক্ত ছিলেন আবদুল মান্নান। দুলাল বরের ওপর বিরক্ত হয়ে চাঁপদানির বিধায়ক আব্দুল মান্নান তাঁকে বলেন, 'ফের এমন করলে তোকে কংগ্রেসের ঘরে আর ঢুকতে দেব না।' দুলাল বর অবশ্য পরে সব ম্যানেজ করে নেন বলেই খবর।