Bhabanipur Bye-Election: মমতার বিরুদ্ধে প্রার্থী নিতে রাজি নন অধীররা, বিজেপিকে ফাঁকা জমি ছাড়তে নারাজ বামেরা
মমতা ব্যানার্জি

কলকাতা, ৫ জুন: দুটো দলই সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে একেবারে শূন্য হয়েছে। এই প্রথম রাজ্য বিধানসভা কংগ্রেস-সিপিএম বা বামফ্রন্টের কোনও দলের প্রতিনিধি থাকছে না। এদিকে, গতবারের চেয়েও বেশি আসনে জিতে রাজ্যে টানা তিনবার ক্ষমতায় এসেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে নন্দীগ্রামে আসনে শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)-র বিরুদ্ধে একটুর জন্য পরাজিত হওয়ায় মুখ্যমন্ত্রীকে উপনির্বাচনে জিতে আসতে হবে। আর সেই কারণেই দিদির পুরনো আসনে জেতা ভবানীপুর (Bhabanipur)  কেন্দ্র থেকে বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় (Sovandeb Chatterjee )। আরও পড়ুন: দেশে দৈনিক করোনা সংক্ৰমণ কমে ১.২০ লক্ষ, চিন্তায় রাখল মৃত্যুসংখ্যা 

দিদি এবার ভবানীপুর কেন্দ্র থেকে উপনির্বাচনে জিতে মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসা নিশ্চিত করতে চান। এবার সেই উপনির্বাচনে মমতার বিরুদ্ধে সৌজন্যের খাতিরে প্রার্থী দিতে রাজি নন কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি অধীর চৌধরী। যে অধীরকে কট্টর মমতা বিরোধী হিসেবেই সবাই চেনেন। মমতা ঝড়ে এবার বিধানসভা নির্বাচনে অধীরের দুর্গ মুর্শিদাবাদ থেকে কংগ্রেস পুরোপুরি মুছে গিয়েছে। সেই অধীর এবার বলছেন, যেহেতু মমতা ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী হয়ে গিয়েছেন তাই সৌজন্যবশত তাঁর বিরুদ্ধে কংগ্রেসের প্রার্থী দেওয়া ঠিক হবে না। অধীরের বক্তব্যে অনেক রাজ্য কংগ্রেস নেতাই সম্মতি জানিয়েছেন বলে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ।

তবে বামেরা কিন্তু মমতার বিরুদ্ধে প্রার্থী দিতে চায়। যদিও করোনার দাপটে কারণে ভবানীপুরে উপনির্বাচনের দিনক্ষণ এখনও অনিশ্চিত। কিন্তু বামেদের যুক্তি হল, মমতার বিরুদ্ধে প্রার্থী না দিলে আসলে তা ঘুরপথে বিজেপিকেই সুবিধা করে দেওয়া। আর রাজ্যের বিরোধিতার চাবিকাঠিটা বিজেপিকে তুলে দেওয়া। যদিও বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরীর বক্তব্য হলে মমতার বিরুদ্ধে আপোস নয়, যেহেতু উনি মুখ্যমন্ত্রী হয়ে গিয়েছেন, তাই তাঁর বিরুদ্ধে প্রার্থী না দেওযার পক্ষেই আমি। তবে কংগ্রেসের একাংশের আবার বক্তব্য, কংগ্রেসের প্রার্থী না থাকলে সেখানে তৃণমূলকে সমর্থন করতে চান না, এমন ভোটারদের জোর করেই বিজেপিকে ভোট দেওয়া বাধ্য করা হবে! তাই আরও ভেবেচিন্তেই এই বিষয়ে এগোনো উচিত। এই প্রসঙ্গে উল্লেখযোগ্য হল, ২০১১ বিধানসভায় তৃণমূলের জয়ের পর ভবানীপুরে উপনির্বাচন জিতে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন মমতা। সেবার তৃণমূলের জোটসঙ্গী ছিল কংগ্রেস। মমতার বিরুদ্ধে উপনির্বাচনে নন্দিনী মুখার্জিকে প্রার্থী করে হেরেছিল সিপিএম। ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে ভবানীপুরে বাম-কংগ্রেস জোট মমতার বিরুদ্ধে কংগ্রেস নেত্রী দীপা দাশমুন্সিকে প্রার্থী করেছিল। সেই নির্বাচনে মমতা জিতেছিলেন ২৫ হাজারেরও বেশি ভোটে।