Kolkata: কোয়ারেন্টাইনে না থেকে বাইরে ঘোরাঘুরি, দমদমে কোভিড রোগীর পরিবারের সঙ্গে প্রতিবেশীদের হাতাহাতি
প্রতীকী ছবি(Photo Credits: Getty Images)

দমদম, ৯ জুলাই: দিনে দিনে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হচ্ছে। স্বাস্থ্য ভবনের কর্মীদের একাংশের শরীরে মিলেছে মারণ রোগের ভাইরাস। এরমধ্যেই সংক্রমণ রুখতে আজ বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটা থেকে লকডাউনে যাচ্ছে রাজ্য। শহর কলকাতা, উত্তর ২৪ পরগনা-সহ বেশ কয়েকটি জেলায় কনেটেইনমেন্ট জোনের তালিকা দীর্ঘ হয়েছে। শোনা যাচ্ছে কড়া লকডাউন এক সপ্তাহ পর্যন্ত চলবে। এরই মধ্যে দমদমের বস্তিতে করোনা আক্রান্তের পরিবারের (COVID-19 positive) সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়ল প্রতিবেশীরা। সেই বচসা শেষমেশ হাতাহাতি পৌঁছালে প্রায় ৬ জন জখম হয়েছেন। আহতদের আরজি কর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে বিরাট পুলিশ বাহিনী।

জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ১৮ নম্বর দমদম রোডের বস্তি এলাকার। বস্তির বাসিন্দাদের একজন করোনভাইারাস পজিটিভ। স্থানীয়দের অভিযোগ, সংক্রামিত ব্যক্তির পরিবারের লোকজন কোনওরকম নিয়ম মানছেন না। বারবার বলা সত্ত্বেও তাঁরা বাড়িতে না থেকে জনসমক্ষে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। বিষয়টি নিয়ে বস্তির বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভ দানা বাঁধে। বুধবার সকালে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে অশান্তি ছড়ায়। বেলা বাড়তে করোনা আক্রান্তের পরিবারের সঙ্গে আতঙ্কিত বাসিন্দাদের বচসা শুরু হয়ে যায়। উত্তেজনা বাড়লে হাতাহাতি লেগে যায় দুপক্ষের মধ্যে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ বাহিনী। অশান্তি কারণে গোটা বস্তি এলাকা থমথমে হয়ে রয়েছে। আরও পড়ুন-Melania Trump Wooden Sculpture: আমেরিকার স্বাধীনতা দিবসের দিনে অঘটন, স্লোভেনিয়ায় পুড়ল মেলানিয়া ট্রাম্পের কাঠের মূর্তি

এদিকে রাজ্যে একদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় সোমবার সারা দিনে নতুন করে ৯৮৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ২৩ জনের। এনিয়ে রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ২৪ হাজার ৮২৩। মৃত্যু হয়েছে ৮২৭ জনের। বর্তমানে চিকিৎসা চলছে ৭ হাজার ৭০৫ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫০১ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ১৬ হাজার ১৯১ জন। সুস্থতার হার ৬৫.৬২ শতাংশ। আজ এই পরিসংখ্যান দিয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তর।