Hookah Bars: যুব সমাজকে নেশা থেকে বাঁচানোর চেষ্টা! কলকাতায় বন্ধ হুক্কা বার
প্রতীকী ছবি

কলকাতা: হুক্কা বারগুলিতে (Hookah Bars) মাদকের (drugs) কারবার চলছে। এই ধরনের অভিযোগ পাওয়ার পরেই কলকাতার (Kolkata) সব হুক্কা বারগুলি বন্ধ করার নির্দেশ দিলেন কলকাতা পুরসভার (Kolkata Municipal Corporation) মেয়র (Mayor) ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim)।

শুক্রবার এবিষয়ে তিনি একটি নির্দেশিকা পাঠিয়েছেন শহরের সমস্ত হুক্কা বারের মালিকদের কাছে। তাতে উল্লেখ করা হয়েছে, নিষেধ করার পরেও যদি কোনও বারে লুকিয়ে হুক্কা দেওয়া হয় তাহলে তাদের লাইসেন্স বাতিল করে দেওয়া হবে।

এপ্রসঙ্গে তিনি সংবাদমাধ্যমকে জানান, "হুক্কা বারগুলিতে বেআইনি মাদক (illegal drug) ব্যবহার করা হচ্ছিল বলে অভিযোগ আসছিল। এর ফলে যুব সমাজ মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছিল। এই কারণেই হুক্কা বারগুলি বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।"

কলকাতা পুরসভার এই সিদ্ধান্ত স্বাগত জানিয়েছেন চিকিৎসকরা (Doctors)। তাঁরা বলছেন, কেউ যদি এক ঘণ্টা হুক্কা টানে তাহলে ১০০টি সিগারেটের (cigarettes) সমান নিকোটিন (nicotine) তার শরীরে যাবে। যা খুবই ক্ষতিকর।

অ্যাপোলো মাল্টিস্পেশালিটি হাসপাতালের (Apollo Multispeciality Hospitals) সিনিয়র ইন্টারভেনশনাল কার্ডিওলজিস্ট (interventional cardiologist) ডা: বিকাশ মজুমদার বলেন, "যদি কোনও রেস্তরাঁর (restaurants) মধ্যে হুক্কা বার (hookah bars) থাকে তাহলে পরোক্ষ ভাবে (passive smoking) অনেকে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। এক ঘণ্টা হুক্কা টানলে ১০০টি সিগারেট টানার সমান ক্ষতি হবে শরীরের।"