Mohammad Shami: বিজেপির হয়ে ভোটে দাঁড়াবেন মহম্মদ সামি? বসিরহাটে নুসরত বনাম সামি লড়াই নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে
Shami replace bumrah Photo Credit: Twitter@CricCrazyJohns

বাইশ গজের পর কি এবার রাজনীতির পিচে নতুন স্পেল শুরু করবেন ভারতের তারকা পেসার মহম্মদ সামি (Mohammad Shami)? লোকসভা ভোটের আগে বিজেপির নজরে বাংলা। নরেন্দ্র মোদীকে অনায়াসে সিংহাসনে ফিরতে হলে বাংলা থেকে ভাল করতেই হবে। আর সেটা করতে হলে চমকপ্রদ কিছু স্ট্র্যাটেজি নিতে হবে পদ্ম শিবির। কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিত গঙ্গোপাধ্যায়-কে দলে নিয়ে চমকে দিয়েছে গেরুয়া শিবির। আর এবার বিজেপির নজরে ভারতের তারকা ক্রিকেটার মহম্মদ সামি। ক মাস আগে দেশের মাটিতে বিশ্বকাপে অবিশ্বাস্য বোলিং করে সবার মন জেতেন সামি। সেই সময় সামিকে কাছে টেনে নেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। মোদীর প্রশংসাও সেই সময় শোনা গিয়েছেল সামি-র গলায়। আর এখন জোর জল্পনা সামি এবার বাংলার কোনও এক সংখ্যালঘু ভোটার বেশী থাকা লোকসভা আসন থেকে গেরুয়া শিবিরের হয়ে ভোটে দাঁড়াতে চলেছেন।

সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে, সামি বসিরহাট লোকসভা কেন্দ্র থেকে পদ্ম প্রতীকে ভোটে দাঁড়াতে পারেন। সেক্ষেত্রে তৃণণূল যদি আবার নুসরত জাহানকে প্রার্থী করে, আর বিজেপি-র সঙ্গে সামির কথা চূড়ান্ত হয়, তাহলে বসিরহাটে সামি বনাম নুসরত ম্যাচ দেখা যেতে পারে। প্রসঙ্গত, ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি-র হয়ে দাঁড়িয়ে জয় পান ভারতের প্রাক্তন পেসার অশোক দিন্দা।

দেখুন খবরটি

তবে অনেকে আবার এখন সামির বিজেপিতে যোগদানের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছেন। এর প্রধান দুটি কারণ ৩৩ বছরের সামি-র মধ্যে এখনও বেশ কিছুটা ক্রিকেট বাকি আছে। চোট সারিয়ে সামি-র এখনও অনেক দেশের জার্সি ও আইপিএলে অনেক ভাল স্পেল উপহার দেওয়ার আছে। এমন সময় রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার ঝুঁকিটা হয়তো সামি নেবেন না। পাশাপাশি সামি ঘনিষ্ঠ মহলেও জানিয়েছিলেন, রাজনীতিতে তিনি কখনই যোগ দেবেন না। প্রাক্তন স্ত্রী হাসিন জাহানের সঙ্গে শামি-র এখনও আদালতে কিছু মামলা চলছে। সেটাও তার ভোটে দাঁড়াতে বাধা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

রাজ্য বিজেপি নেতারা এই ইস্য়ুতে মুখে কুলুপ এঁটেছেন। তবে বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার বলেছেন, অনেকেই বিজেপিতে যোগ দিতে চাইছেন। আগামী কয়েক দিন বেশ কয়েকটি বড় নাম তাদের দলে যোগ দিচ্ছেন। বিচারপতি অভিজিত গঙ্গোপাধ্যায় থেকে বরানগরের তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায়--লোকসভা ভোটের আগে বিজেপির চমকের তালিকা আর কত দীর্ঘ হয়ে সেটা দেখার। যদিও ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে বঙ্গে পদ্ম শিবিরের এই স্ট্র্য়াটেজি কাজে দেয়নি।