সদ্য জেল খেটে বেরিয়েছে আকাশ, ছেলের পাশে দাঁড়িয়ে কী বললেন বাবা কৈলাস বিজয়বর্গীয় ?
কৌলাশ বিজয়বর্গীয়(Photo Credits: ANI)

ইন্দোর, ১ জুলাই, ২০১৯: পশ্চিমবঙ্গের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা নিয়ে একাধিকবার সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়(Kailash Vijayvargiya)। কিন্তু ছেলে যখন হাতে আইন তুল নিলেন তখন উল্টো সুর শোনা গেল বাবার গলায়। ছেলের দোষকে লঘু করতে কৈলাস বলেন, ‘‌দু’জনেই অনভিজ্ঞ। নাবালকের মতো কাজ করেছে।’‌  আসলে  আকাশের পাশে দাঁড়িয়ে কৈলাশ বুঝিয়ে দিলেন ওই পুর অফিসারও দোষী ছিলেন। ছেলে আকাশ ব্যাট দিয়ে মধ্যপ্রদেশের এক পুর আধিকারিককে পিটিয়ে শিরোনামে এসেছিলেন গত সপ্তাহেই। পুলিশ গ্রেপ্তার করেছিল আকাশকে। পরে তিনি জামিন পেয়ে যান। এবার ছেলের প্রসঙ্গে মুখ খুললেন বাবা কৈলাস। জানালেন, তাঁর ছেলে ‘কাচ্চা খিলাড়ি’‌ (কাঁচা খেলোয়াড়)।

ঠিক কী বলেছেন কৈলাশ বিজয়বর্গীয়?‌ তাঁর কথায়, ‘‌আমার মতে দু’পক্ষই দোষী। আবার দু’পক্ষেই অনভিজ্ঞ, নাবালকের মতো আচরণ করেছে। এটা এমন কোনও বড় ইস্যু নয় যতটা বড় করে দেখানো হচ্ছে।’‌ প্রথমবার বিধায়ক হয়েছেন আকাশ (Akash Vijayvargiya)। ইন্দোর–৩ থেকে তিনি ভোটে জিতেছেন। গত বুধবার ইন্দোরে এক পৌর আধিকারিককে মারধর করেন তিনি। ৩৪ বছরের রাজনীতিবিদ ও তাঁর সঙ্গীরা পুলিশের সামনেই ওই পৌর আধিকারিককে ব্যাট দিয়ে মারধর করেন। ভিডিওটি প্রকাশিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়ে যায়।

পুর আধিকারিকদের প্রতিও একটি ‘উপদেশ’ দেন কৈলাশ।আরও পড়ুন, মাস-সপ্তাহের শুরুতেই বৃষ্টিতে নাজেহাল মুম্বই, ট্রেন লাইন ডুবল জলে,যানজটে কার্যত স্তব্ধ জনজীবন

তাঁর ছেলে বিধায়ক, এবং কৈলাশের বক্তব্য একটি জনপ্রিতিনিধির কথা ভাল করে শোনা উচিত আধিকারিকদের। কারণ জনপ্রতিনিধিরাই মানুষের প্রকৃত সমস্যা তুলে ধরতে পারেন। আর জেল থেকে বেরিয়ে আকাশ বলেন, ‘জনতার স্বার্থে আমি যা করেছি, তার জন্য নিজেকে দোষী ভাবা বা অস্বস্তিতে পড়ার কোনও কারণ নেই। এলাকা ও সেখানকার বাসিন্দাদের ভালর জন্য আমার কাজ আমি চা‌লিয়ে যাব। ভগবানের কাছে প্রার্থনা করি আমাকে যেন উনি আবার ব্যাট হাতে নেওয়ার সুযোগ না দেন‌।’‌