Farmers' Protest: কৃষি আইন প্রত্যাহার না হলে জোট ভাঙবেন, হুঁশিয়ারি রাজস্থানে বিজেপির জোটসঙ্গী হনুমান বেনিওয়ালের
হনুমান বেনিওয়াল (Photo Credits: PTI)

জয়পুর, ৩০ নভেম্বর: আগেই বিজেপি থেকে বেরিয়ে এসেছিল জোটসঙ্গী পাঞ্জাবের অকালি দল নেত্রী হরসিমরত কউর। এবার কৃষি আইনের বিরোধিতা প্রসঙ্গে রাজস্থানে বিজেপির জোটসঙ্গী হনুমান বেনিওয়ালেরও কড়া হুঁশিয়ারি। রাষ্ট্রীয় লোকতান্ত্রিক পার্টি কেন্দ্রের তিনটি কৃষি আইন প্রত্য়াহার না করলে বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক রাখার বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করতে তারা বাধ্য হবে বলে জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে।

আরএলপি নেতা হনুমান বেনিওয়াল এদিন অমিত শাহকে টুইট করে জানান,"দেশজুড়ে যে কৃষক আন্দোলন হচ্ছে, এই অবস্থা দেখার পর আমি চাইব কৃষি আইনের ৩ টি বিল এই মুহূর্তে প্রত্যাহার করা হোক।" পাশাপাশি এও জানান, কেন্দ্র দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে তাঁর দল জোটে থাকবে কিনা, ভাবতে বাধ্য হবে। আরও পড়ুন, কৃষকদের প্রতিবাদে স্তব্ধ রাজধানী, দিল্লি-গুরুগ্রাম সীমান্তে হাজির হাজার হাজার প্রতিবাদী কৃষক

তিনি আজ বলেন,"আইনগুলি প্রত্যাহার না হলে আমরা এনডিএ-তে থাকার ব্যাপারে আবার ভাবব। আমরা কৃষকদের সঙ্গে আছি, প্রয়োজনে দিল্লিতে মিছিল করে যাব। প্রধানমন্ত্রী ও শাহের কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে রাজধানীতে ধরনায় বসার জায়গা দেওয়া উচিত। কৃষকদের সঙ্গে কোনও খারাপ আচরণ করা হলে পুরো দেশের কৃষকরা দিল্লি ঘেরাও করতে পথে নামবেন।"

এদিকে আজ দিল্লির (Delhi) রাস্তায় লাগাতার প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন কৃষকেরা। পাঞ্জাব, হরিয়ানা-সহ একাধিক ভিন রাজ্য থেকে হাজার হাজার কৃষক (Farmers Protest) সামিল হয়েছেন এই প্রতিবাদে। আজ, সোমবার পাঁচদিনে পড়ল কৃষকদের প্রতিবাদ মিছিল। এদিন কৃষকদের মিছিলের জেরে তীব্র যানজটে বিধ্বস্ত দিল্লি-গুরুগ্রাম সীমান্ত। ডিসিপি সাউথ-ওয়েস্ট প্রতাপ সিং এএনআই-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানান, "কৃষকদের মিছিল এদিকে আসার কোনও খবর আমাদের কাছে ছিল না। তবে আমরা আগে থেকেই পরিস্থিতি মোকাবিলায় হরিয়ানা থেকে দিল্লিতে ঢোকার সিংঘু এবং টিকরি সীমান্তে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়ে রেখেছিলাম।"