Kulwinder Kaur: কঙ্গনাকে চড়কাণ্ডের খেসারত, কুলবিন্দরের গ্রেফতারির প্রতিবাদে পদযাত্রার ডাক কৃষক সংগঠনের
Kangana Ranaut, Kulwinder Kaur (Photo Credit: Twitter)

নয়া দিল্লি, ৭ জুনঃ চণ্ডীগড় বিমানবন্দরে (Chandigarh Airport) বলিউড অভিনেত্রী তথা বিজেপির সদ্য নির্বাচিত সাংসদ কঙ্গনা রানাউতকে (Kangana Ranaut) চড় মারার অভিযোগে গ্রেফতার হলেন মহিলা সিআরপিএফ জওয়ান কুলবিন্দর কৌর (Kulwinder Kaur)। বৃহস্পতিবার বিমানবন্দরে নিরাপত্তাজনিত তল্লাশি নিয়ে নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে বচসা বাঁধার জেরে অভিনেত্রীকে সোজা চড় কষিয়ে দেন কর্তব্যরত ওই মহিলা জওয়ান। কঙ্গনার থাপ্পড়কাণ্ডের উত্তাল হয় সোশ্যাল মিডিয়া। জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মার হস্তক্ষেপে কুলবিন্দরকে প্রথমে তাঁর চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়। এরপর শুক্রবার তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ২০২১ সালে পাঞ্জাবের কৃষক আন্দোলনকে ঘিরে কঙ্গনার বিতর্কিত মন্তব্যের প্রতিবাদে তাঁর গায়ে হাত তুলেছেন বলে নিজেই জানিয়েছেন ওই মহিলা নিরাপত্তারক্ষী। ঘটনার পর থেকেই নেটিজেনদের একাংশ সমর্থন করে গিয়েছে কুলবিন্দরকে। এবার একাধিক কৃষক ইউনিয়ন গ্রেফতার হওয়া বিমানবন্দরের মহিলা নিরাপত্তারক্ষীর পাশে দাঁড়াল ।

আরও পড়ুনঃ কৃষকদের অসম্মান করার প্রতিবাদে কঙ্গনাকে ‘চড়’, বরখাস্ত হয়ে মুখ খুললেন মহিলা নিরাপত্তারক্ষী

কুলবিন্দর কৌরের (Kulwinder Kaur) বিরুদ্ধে কোনো অযৌক্তিক এবং বেআইনি ব্যবস্থা যেন গ্রহণ করা না হয়, সেই দাবি জানিয়ে পদযাত্রার পরিকল্পনা করেছে কৃষক সংগঠন। আগামী ৯ জুন পাঞ্জাবের (Punjab) মোহালিতে কুলবিন্দর কৌরের জন্যে 'ন্যায়ের' দাবিতে পদযাত্রার ডাক দিয়েছেন তাঁরা। ৬ জুন চণ্ডীগড় বিমানবন্দরে যে ঘটনাটি ঘটেছে তার পূর্ণ ধারাবাহিক তদন্তেরও আহ্বান জানিয়েছে কৃষক সংগঠন। সম্মিলিত কিষাণ মোর্চা, কিষাণ মজদুর মোর্চার মতো বিশিষ্ট কৃষক সংগঠনগুলি শুক্রবার জানিয়েছে, তারা কুলবিন্দর কৌরের পাশে রয়েছে। তাঁর উপর হওয়া অবিচার রুখতে 'ইনসাফ পদযাত্রা'য় সামিল হবেন সকলে।

বলি অভিনেত্রী তথা হিমাচল প্রদেশের (Himachal Pradesh) মান্ডি লোকসভা আসন থেকে নবনির্বাচিত বিজেপির সাংসদ কঙ্গনা অভিযোগ তুলেছেন, চণ্ডীগড় বিমানবন্দরে কর্তব্যরত মহিলা নিরাপত্তারক্ষী কুলবিন্দর কৌর তাঁকে থাপ্পড় মেরেছেন, গালিগালাচ করেছেন। নিজেকে কৃষক আন্দোলনের সমর্থক বলে পরিচয় দিয়ে নিরাপত্তাকর্মী এমন কাজ করেছেন বলে অভিযোগে জানান অভিনেত্রী। অন্যদিকে পাঞ্জাবের বাসিন্দা কুলবিন্দর বলেন, ২০২১ সালে দিল্লির রাজপথে জারি থাকা কৃষক আন্দোলনের সময়ে কঙ্গনা মন্তব্য করেছিলেন, কৃষকেরা ১০০ টার জন্যে বিক্ষোভে বসে আছেন। সেই আন্দোলনে সামিল ছিলেন খোদ কুলবিন্দরের মাও।