Unemployment Rate Reduced: দেশের নিরিখে পশ্চিমবঙ্গে বেকারত্বের হার কম, টুইটে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি
Mamata Banerjee. Photo Source: ANI/Twitter

কলকাতা, ৪ জুলাই: গোটা দেশের নিরিখে বেকারত্বের হার কমেছে পশ্চিমবঙ্গে। শনিবার একটি টুইটে সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকনমি বা CMIE-র এক রিপোর্টের তথ্য পেশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। সেই রিপোর্ট অনুযায়ী, করোনাভাইরাস (Coronavirus) ও লকডাউনের জেরে গোটা দেশে কর্মসংস্থানের কঠিন পরিস্থিতিতেও জাতীয় গড়ের থেকে অনেকটাই কম পশ্চিমবঙ্গের বেকারত্বের হার।

এই সময়ের খবর অনুযায়ী, বুধবার প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, এ বছর জুনে দেশে বেকারত্বের হার ১১%। যা মে মাসের ২৩.৫% এর থেকে কম। আর এখানেই উল্লেখযোগ্য ভাবে কমেছে পশ্চিমবঙ্গে বেকারত্বের হার। যা কমে দাঁড়িয়েছে ৬.৫%। মুখ্যমন্ত্রী টুইটে লেখেন, 'করোনাভাইরাস ও আম্ফানের কারণে ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় ব্যাপক অর্থনৈতিক পরিকল্পনা করেছি আমরা। যার প্রমাণ মিলছে রাজ্যের বেকারত্ব হার নিয়ে CMIE-র তথ্যে।'

আর পড়ুন, বন্ধ হল এবছরের পৌষ মেলা, হবে না ২০২১-র বসন্তোৎসবও; ঘোষণা বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের

লকডাউনে জনমুখী বিভিন্ন প্রকল্পে কাজ করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। ভিন রাজ্যে কাজ হারিয়ে বাংলায় ফিরে আসা IT কর্মীদের জন্য সরকারি পোর্টাল চালু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরার পর, তাঁদের ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পে ব্যবহার করা শুরু হয়েছে। দেশের রাজ্যগুলির মধ্যে বেকারত্বের হার সর্বোচ্চ হরিয়ানায়, ৩৩.৬%। দ্বিতীয়, ত্রিপুরা, ২১.৩%। উত্তরপ্রদেশে বেকারত্বের হার ৯.৬%।

লকডাউনের কারণে প্রায় প্রতিদিনই কর্মী ছাঁটাই করেছে বেসরকারি একাধিক সংস্থা, বিভিন্নপ্রান্ত থেকে ফিরে আসতে হয় পরিযায়ী শ্রমিকদের। তবে CMIE-র রিপোর্ট অনুযায়ী, লকডাউন শিথিল হওয়ায় বেকারত্বের হার কিছুটা কমেছে।