Juniors Doctors Salary In West Bengal: বাংলায় জুনিয়র ডাক্তারদের বেতন বাড়ছে, ঘোষণা করলেন রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য
Image used for representational purpose only Photo Credits: Twitter/ Olivier Delfour

কলকাতা, ৮ জুন: একধাক্কায় বেশ কিছুটা বেতন বাড়ল জুনিয়ার চিকিৎসকদের। সোমবার রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বেতন বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেন। জুনিয়ার ডাক্তারদের এতদিন মাসিক বেতন ছিল ২৩,৬২৫ টাকা। সেই বেতন বেড়ে হচ্ছে ২৮,০৫০ টাকা। হাউজ স্টাফদের বেতন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৩,৭৮১ টাকা। ডাক্তারি পড়ুয়াদের পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ট্রেনিংয়ের প্রথম বর্ষের পড়ুয়াদের বেতন বেড়ে দাঁড়াল ৪৩,৭৫৮ টাকা। আরও পড়ুন: Lockdown Extended: লকডাউন বাড়ল ৩০ জুন পর্যন্ত, ধর্মীয় স্থান ও বিয়েবাড়িতে ২৫ জনের বেশি জমায়েত নয়, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী 

ডাক্তারদের কাজের নির্দিষ্ট কোনও সময় থাকে না। পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে পুরোটাই। আর এখন করোনাভাইরাসের জেরে এই যুদ্ধে রীতিমত নিজেদের জীবন বিপন্ন করে লড়ছেন তাঁরা। সেক্ষেত্রে রাজ্য সরকারকে এই সিদ্ধান্ত নি:সন্দেহে চিকিৎসকদের আর অনেক উৎসাহিত করে তুলবে। যদিও করোনা লড়াইয়ে বারবারই রাজ্যের জুনিয়র ডাক্তারদের কাজের প্রশংসা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

জুনিয়ার ডাক্তাররা সাধারণত ডাক্তারি নিয়ে পড়াশুনা করেন। পড়াশুনার সময়ই হাতে কলমে ডাক্তারি শিখতে তারা চিকিৎসা করেন। তাদেরই জুনিয়ার চিকিৎসক বলা হয়। রাজ্যে কমবেশি ১০ হাজার চিকিৎসক রয়েছে। প্রতিটি হাসপাতালের প্রতিটি চিকিৎসক ইউনিটে জুনিয়ার ডাক্তার থাকেন এবং হাউজ স্টাফেরাও থাকেন। এছাড়া থাকেন একজন আরএমও। তবে এমবিবিএস পাশ করলেই আরএমও হওয়া যায়।

আড়াই মাস পর আজ থেকে খুলেছে রাজ্যের অফিসগুলি। ৭০% কর্মী নিয়ে কাজ করছে তারা। আজ নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee) জানান, রাজ্যে ৩০ জুন পর্যন্ত লকডাউন চলবে। মেনে চলতে হবে বেশ কিছু নিয়ম। যেমন- ধর্মীয় স্থান, বিয়ে বাড়িতে ২৫ জনের বেশি জমায়েত করা যাবে না। রাজ্যে বাড়তে থাকা করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দেখে উদ্বিগ্ন মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন,"অন্য রাজ্য থেকে মানুষ বাংলায় ফিরলেও, বাংলায় থাকা অন্য রাজ্যের শ্রমিকরা কিন্তু যেতে চাইছেন না। এটাই বাংলার সংস্কৃতি, ঐতিহ্য।" এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে সকলকে সাবধানে থাকার বার্তা দেন।