শুরু হয়েছে রাজ্য বিধানসভার অধিবেশন। আর আজই রাজ্যের পার্শ্বশিক্ষকরা সমকাজে সমবেতনের দাবি তুলে বিধানসভার ৬ নম্বর গেটের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।  এদিন সকাল থেকেই অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেছিল পার্শ্বশিক্ষকদের (Para-Teachers’ Agitation) সংগঠন ‘শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চ’। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতি চরমে পৌঁছায়। বেশ কয়েকজন পার্শ্বশিক্ষিকাকে দেখা যায় গেট টপকে বিধানসভা ভবনের চৌহদ্দিতে প্রবেশের চেষ্টা করছেন। এমনিতেই পুলিশি ঘেরাটোপে থাকে বিধানসভা ভবন। সেখানে কী করে বিক্ষোভরত শিক্ষিকারা গেটে উঠে স্লোগান দিলেন তা নিয়েই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। গোটা ঘটনায় বিরোধী দলের মদতের অভিযোগ করেছেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এই প্রসঙ্গে রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন, “এটা নতুন কোনও ঘটনা নয়। এর আগে বিধানসভায় ঢুকে জ্যোতি বসুকে তাড়া করা হয়েছিল। তিনি অন্য গেট দিয়ে পালিয়েছিলেন। তবে আমি বলব, বিধানসভায় সর্বদল থাকে। সেখানে কার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানো হচ্ছে? তাছাড়া এভাবে বিধানসভার সামনে বিক্ষোভ দেখিয়ে কোনও সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়। এর জন্য সুষ্ঠুভাবে আলোচনার প্রয়োজন রয়েছে।”