Typhoon Hagibis in Japan: টাইফুন হাগিবিসের দাপটে জাপানে মৃত ১০, শোকবার্তা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির
(Photo Credit: IANS

নতুন দিল্লি, ১৩ অক্টোবর: জাপানে টাইফুন হাগিবিসির (Typhoon Hagibis) জেরে মৃতদের প্রতি সমাবেদনা জানালেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। গত ৬০ বছরের মধ্যে শনিবার সবচেয়ে শক্তিশালী টাইফুন হাগিবিস জাপানে আঘাত হানে। তাতে দেশের প্রায় প্রতিটি অঞ্চলে বন্যা হয়। নরেন্দ্র মোদি প্রাণহানির জন্য সকল ভারতীয়র পক্ষ থেকে জাপানকে সমবেদনা জানান। তিনি এই প্রাকৃতিক দুর্যোগের (natural calamity) ফলে হওয়া ক্ষয়ক্ষতি জাপান যাতে দ্রুত কাটিয়ে উঠতে পারে তার জন্য প্রার্থনা করেছেন। জাপানের ফায়ার ডিজাস্টার অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি সূত্রে জানা গেছে, শক্তিশালী ঝড়ের জেরে কমপক্ষে ১০ জন মারা গেছেন। আহতর সংখ্যা অন্তত ১৪০ জন।

জাপানের ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলির প্রতি শোক প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী টুইটারে লিখেছেন, "জাপানের সুপার টাইফুন হাজিবিসের ফলে হতাহতের ঘটনায় আমি সকল ভারতীয়ের পক্ষ থেকে সমবেদনা জানাই। এই প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার জন্য প্রার্থনা করছি।" তাঁর আরও যোগ, "এই কঠিন সময়ে জাপানের পাশে দাঁড়াচ্ছে ভারত। নির্ধারিত সফরে জাপানে যাওয়া ভারতীয় নৌবাহিনীর কর্মীরা উদ্ধারকাজে সহায়তা করতে পেরে খুশি হবে।" দুর্গোগ মোকাবিলায় জাপানিদের প্রস্তুতিরও প্রশংসা করেছেন নরেন্দ্র মোদি। তিনি লিখেছেন, "আমি নিশ্চিত যে জাপানি জনগণের প্রস্তুতি এবং আমার বন্ধু শিনজো আবে-র নেতৃত্ব দুর্যোগ পরিস্থিতির দ্রুত সমাধান করতে সক্ষম হবে। প্রাকৃতিক দুর্যোগের বিরুদ্ধে জাপানের প্রস্তুতি সত্যিই প্রশংসনীয়।" আরও পড়ুন: পাকিস্তানে ডেঙ্গি: আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়াল, মহামারীর আকার নিয়ে ডেঙ্গিতে মৃত্যুর সংখ্যা ২৫০

টাইফুন হাগিবিসের কারণে জাপানের ১২টি জেলা ব্যাপক বন্যার মুখোমুখি হয়। প্রায় ১০ লাখ মানুষকে নিরাপদ স্থানে স্থানান্তরিত করা হয়। যদিও ৬০ লাখ মানুষকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। পুলিশ, দমকল, উপকূলরক্ষী এবং প্রতিরক্ষা বাহিনীর ২৭ হাজার কর্মী উদ্ধার ও ত্রাণের কাজে নেমেছে।