Tamil Nadu Man Banned From Using Social: ফেসবুকে নরেন্দ্র মোদির মর্ফড ছবি পোস্ট, আগাম জামিন পেতে এক বছর সোশাল মিডিয়া ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা ব্যক্তির
Facebook (Photo Credits: IANS)

চেন্নাই, ৬ নভেম্বর: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) মর্ফড ছবি (Morphed Picture) সোশাল মিডিয়ায় পোস্ট করায় এক বছর সোশাল মিডিয়া ব্যবহার করতে পারবেন না এক ব্যক্তি। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আগাম জামিন দেওয়ার শর্ত হিসেবে এই নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ঘটনাটি তামিলনাডুর কন্যাকুমারি। জবিন চার্লস (Jabin Charles) নামের ওই ব্যক্তি ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একটি মর্ফড ছবি পোস্ট করেন। এনিয়ে নজিল রাজা নামে বিজেপি এক কর্মী চার্লসের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। সোমবার মাদ্রাজ হাইকোর্টের মাদুরাই বেঞ্চ ( Madurai bench of the Madras High Court) চার্লসকে আগাম জামিন মঞ্জুর করে। তবে শর্ত হিসেবে আদালত নির্দেশ দেয় তিনি এক বছর সোশাল মিডিয়া ব্যবহার করতে পারবেন না।

আগামী জামিনের আবেদন মঞ্জুর করে বিচারপতি জি আর স্বামীনাথন (Justice G R Swaminathan) বলেন, যদি এই সময়কালের মধ্যে জবিন চার্লসকে সোশাল মিডিয়া ব্যবহার করতে দেখা যায় তবে অভিযোগকারী তাঁর আগাম জামিন বাতিল করার আবেদন করতে পারবেন। বিচারপতি চালর্সকে আদালতের কাছে লিখিতভাবে ক্ষমাও প্রার্থনা করতে নির্দেশ দেন। আরও পড়ুন: Woman Blame To Sperm Bank: ছ’ফুট উচ্চতার স্পার্ম ডোনারের ঔরসে জন্মাল বামন সন্তান! বিচার চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হলেন মহিলা

আদালতের নির্দেশ আসতেই চার্লস তা মেনে প্রতিশ্রুতি দেন যে তিনি এক বছর সোশাল মিডিয়া ব্যবহার করবেন না। হলফনামায় তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মর্ফড ছবি পোস্ট করার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, স্থানীয় সংবাদপত্রগুলিতে বিজ্ঞাপন দিয়ে ক্ষমা চাওয়ার জন্যও প্রস্তুত রয়েছেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর অসম্মান করার কোনও নাগরিকের অধিকার নেই এটা বুঝতে ছবিটি দ্রুত ব্লক করে দেন। যদিও চার্লস তাঁর আবেদনে সুপ্রিম কোর্টের একটি পর্যবেক্ষণের উল্লেখ করেছিলেন। যেখানে শীর্ষ  আদালত পর্যবেক্ষণ করেছিল যে ফেসবুক পাবলিক ফোরাম। সেখানে মতামত জানানো কোনও অপরাধ নয়।