Rahul Gandhi: বিজেপিকে হারাতে বিরোধী জোটের পক্ষে সওয়াল রাহুল গান্ধীরও
রাহুল গান্ধী

নয়া দিল্লি, ৩ অগাস্ট: মমতা ব্যানার্জির সুর এবার রাহুল গান্ধীর গলায়। মমতার পর বিজেপিকে হারাতে সব বিরোধী শক্তিকে একজোট হওয়ার আহ্বান জানালেন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি, সাংসদ রাহুল গান্ধী। রাহুল বললেন, যত মানুষ-যত স্বর বিজেপি-র বিরুদ্ধে উঠছে, সেসবগুলো এক জায়গায় হলে তা আরও শক্তিশালী হবে। আর এতে বিজেপি-আরএসএস-এর পক্ষে সেই শক্তিকে চাপা দেওয়া কঠিন হবে। বিরোধী নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে এমন কথাই বললেন রাহুল গান্ধী।

পশ্চিমবঙ্গে ভোটে জয়ের পর দিল্লি সফরে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি দেখা করেছিলেন সোনিয়া গান্ধী-রাহুল গান্ধীর সঙ্গে। সোনিয়া-রাহুলের সঙ্গে বৈঠকের পর মমতাকে তৃপ্ত দেখায়। ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনে বিজোপির বিরুদ্ধে সম্মিলিত হয়ে লড়াইয়ের বার্তাটা সবার আগে তুলেছেন মমতা। ২০১৯ লোকসভার আগেও মমতা দেশের সব বিরোধী শক্তিকে এক জায়গায় করার চেষ্টা করেন। কিন্তু তখন কংগ্রেস নিজেদের চেষ্টায় বিজেপিকে হারানোতেই জোর দিয়েছিল। কিন্তু ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে পরাস্ত হওয়ার পর কেরল বিধানসভায় হার, অসমে উড়ে যাওয়া, দিল্লি-পশ্চিমবঙ্গে খাতা খুলতে না পারা, বিহার একেবারে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ার পর এবার কংগ্রেসও যে বিরোধী জোটের দিকেই ঝুঁকছে সে কথা পরিষ্কার।

এখন কথা হল, সেই বিরোধী জোটকে নেতৃত্বে কে দেবে। ১৯৯৮ সালে কংগ্রেস ছেড়ে বেরিয়ে এসে দেশের রাজনীতিতে মমতা ব্যানার্জি যতটা সফল হয়েছেন, সোনিয়া-রাহুলরা ঠিক ততটাই দলকে সামলাতে ব্যর্থ হয়েছেন। ২০১৪ লোকসভা ভোটে হারের পর থেকে তো কংগ্রেসে বিভিন্ন জায়গায় নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে। অথচ মমতা তাঁর দল গড়ে বাংলায় ক্ষমতায় আসার পর বিজেপি-র মত শক্তিকে হারিয়ে দেখিয়েছেন। তাই মমতার হাতে বিরোধী শক্তির ব্যাটন তুলে দিতে হয়তো রাহুল গররাজি হবেন না।