All India Lashkar-e-Taiba Hit List: জঙ্গিদের হিট লিস্টে নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহ-র সঙ্গে বিরাট কোহলিও
নরেন্দ্র মোদি, বিরাট কোহলি, অমিত শাহ। (Photo Credits: Getty Images/PTI)

নতুন দিল্লি, ২৯ অক্টোবর: জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা রদ করায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi), রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ (Ram Nath Kovind) , স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) -কে হিটলিস্টে রেখেছে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন 'অল ইন্ডিয়া লস্কর-ই-তৈবা' (All India Lashkar-E-Taiba)। মোদি-কোবিন্দ-শাহর সঙ্গে লস্করের হিটলিস্টে আছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিও। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা- NIA-এর কাছে এই হিটলিস্ট পাঠিয়ে হুমকি দিয়েছে জঙ্গি সংগঠন। যে কোনও সময় এঁদের ওপর প্রাণঘাতী হামলা চালানো হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়েছে। যা নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে সতর্ক করছে এনআইএ। হুমকি চিঠির পর বিরাট কোহলির নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হয়েছে।

ভারতকে শিক্ষা দিতেই মোদি-শাহ-কোহলি সহ আরও বেশ কয়েকজন ভিভিআইপি-র ওপর হামলা চালানো হবে বলে অল ইন্ডিয়া লস্কর নামের নতুন এই জঙ্গি সংগঠন হুমকি দিয়েছে। ৩৭০ ধারা রদ করার সময় জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপালের দায়িত্বে থাকা সত্যপাল মালিকের নামও অল ইন্ডিয়া লস্কর-ই-তৈবার হিটলিস্টে তালিকায় রয়েছে। পাশাপাশি প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের ওপর হামলা চালানো হতে পারে হুমকি চিঠি দেওয়া হয়েছে। আরও পড়ুন-অগ্রিম বেতন নিয়ে বচসা, খুনের অভিযোগে গ্রেফতার ২০ বছরের পুরোনো গাড়ি চালক

এর আগে পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ ৩৭০ ধারা ইস্য়ুতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে খুনের হুমকি দিয়েছেল। গত মাসে জারি করা জইশের হিটলিস্টে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি-র পাশাপাশি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ((NSA) অজিত ডোভাল। অসামরিক বিমান সুরক্ষা দপ্তরে সেই হুমকি চিঠি পৌঁছানোর পরেই চূড়ান্ত সতর্কতা জারি হয়েছে। মূলত জম্মু কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা খর্ব করার প্রতিশোধেই এই খুনের হুমকি তা চিঠিতে স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ভারতের ৩০টি শহরে হামলারও হুমকি দিয়েছিল জইশ-ই-মহম্মদ। এর মধ্যে জম্মু, পাঠানকোট, অমৃতসর, জয়পুর ও গান্ধীনগরের নামও রয়েছে।

দেশের চারটি প্রধান বিমানবন্দরেও হামলা চালানোর ছক কষেছে জইশ জঙ্গিরা। তাছাড়া প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (Prime Minister Narendra Modi) খুনের জন্য বিশেষ একটি দলও তৈরি করা হয়েছে। বলা বাহুল্য, মাস কানেক আগেই জানা গিয়েছিল হাফিজ সইদের তত্ত্বাবধানে জঙ্গি সংগঠন লস্কর-এ-তৈবা প্রধানমন্তdরী নরেন্দ্র মোদির লোকসভা কেন্দ্র বারাণসীতে হামলার পরিকল্পনা করেছে। গোয়েন্দা রিপোর্ট বলছে, দেশের মূল বায়ুসেনা বেস গুলিতেও হামলা চালাতে তৈরি জঙ্গি দল। জম্মু ও কাশ্মীরের বায়ুসেনা ঘাঁটিগুলিতে আত্মঘাতী হামলা চালাতে পারে জইশ-ই-মহম্মদ (Jaish-e-Mohammed), এমন তথ্য গোয়েন্দাদের কাছে রয়েছে। এরপরেই শ্রীনগর, অবন্তীপুরা, জম্মু, পাঠানকোট ও হিন্দোন বায়ুসেনা ঘাঁটিতে চূড়ান্ত সতর্কতা জারি হয়েছে। এই হুমকির মোকাবিলায় উচ্চপদস্থ সেনা কর্তারা প্রায় ২৪ ঘণ্টা ধরেই বায়ুসেনা ঘাঁটিগুলির নিরাপত্তা পর্যালোচনা করে চলেছেন। গোয়েন্দা সংস্থার তরফে জইশ জঙ্গিদের গতিবিধি নজরে আসার পরেই নিরাপত্তার বিষয়টি আরও কড়াকড়ি করা হয়েছে।