Delhi: দিল্লির হাসপাতালগুলিতে অক্সিজেন, বেডের অভাব যেন না হয়, নির্দেশ কেজরিওয়ালের
অরবিন্দ কেজরিওয়াল

দিল্লি, ৭ মে: দিল্লিতে (Delhi) কোভিড (COVID 19) পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হচ্ছে। প্রায় গোটা দিল্লি জুড়ে শুধু গণচিতার ছবি উঠে আসতে শুরু করে। যে ছবি দেখে কার্যত শিহরিত হয়ে ওঠে গোটা বিশ্ব। দিল্লির সেই ছবি যাতে দ্রুত পালটে যায়, তারজন্য দিনরাত এক করে কাজ করতে দেখা যায় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে। গোটা দেশের মুখ্যমন্ত্রীদের কাছে কেজরিওয়াল আবেদন করেন যাতে অতিরিক্তি অক্সিজেন (Oxygen) দিল্লিতে পাঠানো হয়। কেজরিওয়ালের বার বার আবেদন এবং কাজের জেরে অবশেষে একটু একটু করে বদলাতে শুরু করে রাজধানী শহরের কোভিড (Corona) পরিস্থিতি

গোটা বিশ্ব থেকে যখন দিল্লির জন্য অক্সিজেন সহ বিভিন্ন চিকিৎসার সরঞ্জাম আসতে শুরু করে, সেই সময় বদলাতে শুরু করে রাজধানী শহরের পরিস্থিতি। শুক্রবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal) জানান, দিল্লি জুড়ে যাতে কোনও হাসপাতালে বেডের অভাব না থাকে এবং অক্সিজেন থাকে পর্যাপ্ত পরিমাণে,তার ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে। দিল্লি জুড়ে অক্সিজেনের যে আকাল ছিল, তা প্রায় পুরো কমিয়ে আনা হয়েছে। অক্সিজেনের অভাবে যাতে দিল্লিতে আর কোনও মৃত্যু না হয়, তার জন্য ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান কেজরিওয়াল। পাশাপাশি আগামী ৩ মাসের মধ্যে দিল্লির সব মানুষের যাতে ভ্যাকসিন নেওয়া সম্পূর্ণ হয়, সে বিষয়ে কেজরিওয়াল কড়া নজরদারির নির্দেশ দেন।

আরও পড়ুন: Corona Third wave: ''করোনার ভয়াবহ তৃতীয় ঢেউকে আটকানো সম্ভব যদি...''

এসবের পাশাপাশি দিল্লিতে যে টিকাকারণ কেন্দ্রগুলি রয়েছে, সেখানে জেলাশাসকরা তদারকি করবেন। প্রত্যেকদিন ২-৩টি করে টিকাকেন্দ্রে জেলাশাসকদের নজরদারি চালানোর নির্দেশ দেন কেজরিওয়াল। পাশাপাশি বৃদ্ধাশ্রম এবং বিভিন্ন শরণার্থী শিবিরগুলিতেও নজরদারি চালানোর নির্দেশ দেন কেজরিওয়াল।

পাশাপাশি দিল্লির প্রত্যেকটি সংবাদমাধ্যমর অফিসে গিয়ে সেখানকার কর্মীদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলেও আশ্বস্ত করেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল।