Delhi: একজন প্রাপ্তবয়স্ক মহিলা যেখানে ইচ্ছা, যার সঙ্গে ইচ্ছা থাকতে পারে: দিল্লি হাইকোর্ট
Representational Image | (Photo Credits: Pixabay)

নতুন দিল্লি, ২৬ নভেম্বর: "একজন প্রাপ্তবয়স্ক মহিলা (Adult woman) যেখানে ইচ্ছা এবং যার সঙ্গে ইচ্ছা থাকতে করতে পারেন।" একটি মামলার শুনানিতে এই পর্যবেক্ষণ দিল্লি হাইকোর্টের (Delhi high court)। তাঁর বোনকে অপহরণ করা হয়েছে হলে দিল্লি হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন এক ব্যক্তি। ওই মহিলার হেবিয়াস কর্পাসের আবেদনের শুনানি চলাকালীন উচ্চ আদালত এ কথা বলেছে। ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে ওই মহিলার সঙ্গে কথাবার্তা বলার পরে বিচারপতি বিপিন সংঘী ও বিচারপতি রজনীশ ভটনগরের বেঞ্চ বলেছে যে সুলেখা যদি মহিলা চান বাবলু নামের ওই ব্যক্তির সঙ্গে থাকতে পারেন। আদালতের রেকর্ডে দু'জনকে তাঁদের ফার্স্ট নাম দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছিল।

বেঞ্চ নির্দেশে বলেছে, “পুলিশ কর্তৃপক্ষ আবেদনকারীকে (মহিলার ভাই) এবং সুলেখার বাবা-মাকে আইন হাতে না নিতে বা সুলেখা বা বাবলুকে হুমকি না দেওয়ার জন্য পরামর্শ দেবে। সুলেখা যে থানা এলাকায় বাবলুর সঙ্গে থাকেন সেই থানার বিট কনস্টেবলের ফোন নম্বর তাঁদের দিতে হবে, যাতে প্রয়োজনে তাঁরা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন।” আরও পড়ুন: International Flights Suspension Extended By DGCA: আন্তর্জাতিক বিমান ওঠা-নামায় নিষেধাজ্ঞা বাড়ল ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত

আদালত প্রবীণ নামে এক ব্যক্তির আবেদনের শুনানি করছিল, যাতে তিনি বলেছিলেন যে তাঁর বোন সুলেখা ১২ সেপ্টেম্বর নিখোঁজ হয়েছেন। তিনি দাবি করেছিলেন যে তিনি বাবলুকে সন্দেহ করেছিলেন এবং তাঁর বোনকে আদালতে হাজির করার জন্য দাবি জানান। সুলেখাকে ভিডিয়ো কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে আদালতে হাজির করা হয়েছিল, যেখানে বিচারকরা তাঁর সঙ্গে কথা বলেছেন। সুলেখা আদালতকে জানান যে বাবলুর সঙ্গে তিনি নিজের ইচ্ছায় চলে গিয়ে বিয়ে করেছেন। সুলেখা যেহেতু নাবালিকা নন, এই বিষয়টি নজরে রেখে আদালত তাঁকে বাবলুর সঙ্গে থাকার অনুমতি দেয় ও পুলিশকে নিরাপত্তা দিতে বলে। আদালত বলেছে, "সুলেখা যেখানে ইচ্ছা সেখানে বাস করতে পারেন এবং যার সঙ্গে ইচ্ছা তিনি থাকতে পারেন। তিনি সাবালক।"