National Family Health Survey 2021: স্ত্রীকে মারধর করা যুক্তিসঙ্গত? ১৪টি রাজ্যের ৩০ শতাংশেরও বেশি মহিলা বলেছেন হ্য়াঁ
প্রতীকী ছবি (Photo Credits: File Image)

নতুন দিল্লি, ২৮ নভেম্বর: স্ত্রীকে স্বামীর মারধর (Men Beating Wives) সমর্থন করেন? আপনি বলবেন, এটা কি সমর্থন করা যায়। তবে আপনাকে জানিয়ে রাখি দেশের মহিলাদের মধ্যেই অনেকেই এটি সমর্থন করেন। তবে, সেটা অবশ্যই নির্দিষ্ট পরিস্থিতিতে। অবাক হলেও কিছু করার নেই। কারণ সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষাতে এটাই উঠে এসেছে। ১৮ রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে জাতীয় পারিবারিক স্বাস্থ্য সমীক্ষা (National Family Health Survey 2021) চালানো হয়েছিল। তাতে ১৪টি রাজ্যের ৩০ শতাংশেরও বেশি মহিলা বউ পেটানোকে ন্যায়সঙ্গত বলেছেন। মজার বিষয় হল, পুরুষদের মধ্যে কম সংখ্যা এই ধরনের আচরণকে যুক্তিসঙ্গত মনে করেছেন।

সমীক্ষা অনুসারে, তেলঙ্গনা (৮৪ শতাংশ), অন্ধ্রপ্রদেশ (৮৪ শতাংশ) ও কর্নাটকের (৭৭ শতাংশ) প্রায় ৮০ শতাংশ মহিলা মনে করেছেন যে নির্দিষ্ট পরিস্থিতে স্ত্রীকে মারধর করা যুক্তিসঙ্গত। মণিপুর (৬৬ শতাংশ), কেরল (৫২ শতাংশ), জম্মু ও কাশ্মীর (৪৯ শতাংশ), মহারাষ্ট্র (৪৪ শতাংশ) এবং পশ্চিমবঙ্গ (৪২ শতাংশ) হল এমন কয়েকটি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল, যেখানে বিপুল সংখ্যক নারী স্ত্রীকে মারধর করা ন্যায়সঙ্গত বলে মনে করেছেন। সমীক্ষায় একটি প্রশ্ন ছিল, আপনার মতে স্ত্রীকে স্বামীর মারধর করা কি ন্যায্য? উত্তরে ১৪টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের ৩০ শতাংশেরও বেশি মহিলা বলেছেন, "হ্যাঁ"৷ আরও পড়ুন: Matilda Kullu: ফোর্বসের প্রভাবশালী তালিকায় ওড়িশার আশাকর্মী মাতিলদা কুল্লু

সমীক্ষাটি বউ পেটানোর কতকগুলি সম্ভাব্য কারণ তুলে ধরেছে। সেই কারণগুলি হল-যদি স্বামী স্ত্রীকে অবিশ্বস্ত বলে সন্দেহ করে, যদি স্ত্রী শ্বশুরবাড়িকে অসম্মান করে, যদি স্ত্রী তর্ক করে, যদি সহবাস করতে স্ত্রী অস্বীকার করে, যদি না জানিয়ে বাইরে যায়, যদি স্ত্রী ঘর বা বাচ্চাদের অবহেলা করে, যদি স্ত্রী ভালো খাবার না রান্না করে। মারধরের কারণ হিসেবে উত্তরদাতাদের দেওয়া সবচেয়ে সাধারণ কারণ দুটি হল-ঘর বা বাচ্চাদের অবহেলা করা এবং শ্বশুরবাড়ির প্রতি অসম্মান করা।

১৮টি রাজ্যের মধ্যে ১৩টিতে মহিলা উত্তরদাতারা শ্বশুরবাড়ির প্রতি অসম্মানর বিষয়টি উল্লেখ করেছেন। আর সেটাই মারধরের মূল কারণ। ওই ১৩টি রাজ্য হল-হিমাচল প্রদেশ, কেরল, মণিপুর, গুজরাত, নাগাল্যান্ড, গোয়া, বিহার, কর্নাটক, অসম, মহারাষ্ট্র, তেলঙ্গনা, নাগাল্যান্ড এবং পশ্চিমবঙ্গ। পুরুষদের মধ্যে, কর্নাটকের ৮১.৯ শতাংশ উত্তরদাতা বলেছেন যে বউ পেটানো ন্যায়সঙ্গত। দুই তালিকাতেই সবার শেষে হিমাচল প্রদেশ। সে রাজ্যের মাত্র ১৪.২ শতাংশ পুরুষ এবং ১৪.৮ শতাংশ মহিলা মনে করেন, কাজটা ন্যায়সঙ্গত।