Indian Railways: প্রবীণ নাগরিকদের ছাড় তুলে দিয়ে রেলের বার্ষিক আয় ২ হাজার ২৪২ কোটি টাকার
Indian Railways (Photo Credits: PTI)

নতুন দিল্লি, ১ মে: করোনা কালে বন্ধ হয়েছিল দেশের ৬০ বছর বা তার উর্ধ্বে প্রবীণ নাগরিক বা সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য চালু থাকা বিশেষ ছাড়। করোনার পর দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও সিনিয়র সিটিজেন বা বয়স্ক নাগরিকদের জন্য চালু থাকা আর্থিক ছাড় চালু করেনি ভারতীয় রেল। সিনিয়র সিটিজেনদের ছাড় তুলে দেওয়ায়, এই খাতে রেলের আয় গত অর্থবর্ষে কত হয়েছিল। এই বিষয়ে একটি আরটিআই (তথ্য জানার অধিকার) জমা পড়ে। যার জবাবে জানানো হল, বয়স্কদের ছাড় না থাকায় এই খাতে ২০২২-২৩ অর্থবর্ষে ভারতীয় রেলের লাভ হয়েছে ২ হাজার ২৪২ কোটি টাকা। যদিও এতে দেশের সিনিয়র সিটিজেনদের একটা বড় অংশ সমস্যা পড়েছেন।

সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য এই ছাড় ফেরাতে, এবং তাঁদের জন্য রেল সফর পুরোপুরি বিনামূল্যে করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। কেজরি সেই চিঠিতে লিখেছিলেন, " লোকসভায় সরকারের পক্ষ থেকে জানো হয়েছিল, প্রবীণ নাগরকিদের ট্রেন সফরে ছাড় তুলে দেওয়ায় ভারতীয় রেলের বছরে ১৬০০ কোটি টাকা খরচ বেঁচেছে। শুধু অর্থের কথা না ভেবে প্রবীণদের প্রতি আমাদের দায়িত্বের কথা মাথায় রেখে আমাদের দাবি ট্রেন সফর বিনামূল্যে করে দেওয়ার।"আরও পড়ুন- রেকর্ড জিএসটি আদায় এপ্রিলে

দেখুন টুইট

দেশের ৬০ বছর ও তার উর্ধ্বে প্রবীণ নাগরিকদের যাতায়াতের সুবিধার জন্য ভারতীয় রেলে চালু ছিল টিকিটের জন্য বিশেষ ছাড়। কিন্তু করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের সময় প্রবীণ নাগরিকদের জন্য ট্রেনের টিকিটে বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা বন্ধ করে দেয় ভারতীয় রেল। করোনার দাপট কমলেও এখনও বাকিদের মতই একই অর্থ খরচ করে প্রবীণ নাগরিকদের ট্রেন সফর করতে হয়। এতে অসুবিধায় পড়েছেন প্রবীণরা।